ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, ভাস্কর্য ভে’ঙে তারা মনে করেছে তারা বিজয়ী হয়েছে। যখনি সংবিধান বি’রোধী কার্যক্রম হয়েছে, গণতন্ত্রকে আ’ক্রমণ করেছে,

মু’ক্তিযু’দ্ধের চেতনায় আ’ঘাত এসেছে, তখনি আমরা আইনজীবী অ’ঙ্গন তার দাঁ’তভাঙা জবাব দিয়েছি। এখনও আমরা প্রস্তুত তার দাঁতভাঙা জবাব দিতে। আজ বুধবার সুপ্রিম কোর্টের সামনে ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য

স্থাপনে মৌলবা’দীদের বা’ধা প্রদান ও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভা’ঙচুরের প্র’তিবাদে’ মা’নববন্ধ’নে তিনি একথা বলেন। জুনায়েদ বাবুনগরীকে উদ্দেশ্য করে তাপস বলেন, জনাব বাবুনগরী, আপনারা ভু’লে গেছেন। মনে করেছেন একটি ভাস্কর্য ভাঙলে মুক্তিযু’দ্ধের চেতনা ন’ষ্ট হয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা এ বাংলাদেশে এখন শান্তির নীড় প্রতিষ্ঠা করেছি। এ ক’রোনা ভাই’রাস মো’কাবিলা করে জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। তিনি বলেন, আমরা শান্তিপ্রিয়। আমরা সুন্দরভাবে দেশ এগিয়ে চলার জাতি গঠনে নিয়োজিত আছি।

কিন্তু তার মানে এই নয় যে, আপনারা প্রতিক্রিয়াশীল শ’ক্তি এ মুক্তিযু’দ্ধের চেতনায় জাতির পিতার চেতনায়, জাতির পিতার প্রতি আপনারা কটূক্তি করে, আপানারা মনে করছেন আবার জ’ঙ্গিবাদে দেশকে নিয়ে যাবেন। বাংলা ভাই সৃষ্টি করবেন। যু’দ্ধাপরাধীদের আসন নেবেন।

সে সুযোগ আর বাংলার মাটিতে হতে আমরা দেব না। এ বাংলাদেশ কেউ দ’খল করতে পারবে না। এতে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এস এম মুনীর, মোখলেসুর রহমান বাদল, বশির আহমেদ, মোমতাজ উদ্দিন আহম’দ মেহেদী, নাহিদ সুলতানা যুথী, আজহারুল্লা ভূইয়া, সানজিদা খানম শাহ মঞ্জুরুল হক, কে এম মাসুদ রুমি, এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক, মোজম্মেল হক রানা প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here