সম্প্রতি বাংলা ছায়াছবির জনপ্রিয় অভিনেতা ও বর্তমান শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেছেন, সিনেমার পর্দায় আমরা পাজি মানুষ হলেও বাস্তবে হাজি মানুষ আমরা।

সিনেমার পর্দার হিসাব করে নয়, বাস্তব জীবনের হিসাব করেই আমরা পথ চলতে চাই। তাই সকলে মিলে একসাথে বসে শান্তি কামনার জন্য ‘বয়কট’ খেলা বন্ধ করে ঐক্য গড়ে তুলতে হবে।

অভিনেতা মিশা সওদাগর ও চিত্রনায়ক জায়েদ খানকে ‘বয়কট’ করার প্রতিবাদে গেল ১৯ জুলাই চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি আয়োজিত এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাব অডেটোরিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মিশা সওদাগর। মিশা সওদাগর বলেন,

চলচ্চিত্রের উন্নয়নের জন্য আমাদের প্রত্যেকের হাতে হাত রেখে কাজ করতে হবে। চলচ্চিত্রের এ দুর্দিনে আমাদের ঐক্য গড়েই কিন্তু এ শিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। চলচ্চিত্রের কোনও সংগঠনের বাইরে আমরা না।
ডিপজলের হুঁশিয়ারি, মিশার হুঙ্কার, অঞ্জনার কান্না
প্রযোজক-পরিচালকদের উদ্দেশে মিশা বলেন, চলচ্চিত্রের প্রযোজক-পরিচালক আমাদের অভিভাবক। আমরা ভুল করলে তারাই কিন্তু শুধরে নেবেন। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনও এক তৃতীয় পক্ষ আমাদের সেই সম্পর্ক অবনতি করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আমি মনে করি এমন কেউ নেই যে আমাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটাবে। আমাদের এ সমস্যা খুব শিগগিরই সমাধান হয়ে যাবে।
আরও পড়ুন: আমি থাকতে সমিতিকে কেউ টোকা দিতে পারবে না: ডিপজল

মিশা ১৯৮৬ সালে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন সংস্থা (এফডিসি) আয়োজিত নতুন মুখ কার্যক্রমে নির্বাচিত হন। ১৯৯০ সালে ছটকু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ ও ‘অমরসঙ্গী’ চলচ্চিত্র দুটিতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেন তিনি। কিন্তু দুটি চলচ্চিত্রেই সাফল্যের দেখা পাননি। পরবর্তীতে বিভিন্ন পরিচালক তাকে খলচরিত্রে অভিনয়ের পরামর্শ দেন। তমিজ উদ্দিন রিজভী পরিচালিত ‘আশা ভালবাসা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে প্রথম খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। এরপর থেকে প্রায় ৯শ’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন। বর্তমানে চলচ্চিত্রের নির্ভরযোগ্য খল অভিনেতা মিশা সওদাগর। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here