স্বামী-স্ত্রী’র শা*রীরিক স’ম্পর্ক ধ’র্মীয়ভাবে বৈধ। রাষ্ট্রীয় বা সামাজিকভাবেও তাদের দাম্পত্য জীবনের বৈধতা দেওয়া হয়। তবে তা প্রতিদিনই সুখকর নয়।কিন্তু অনেকেই নিজের অজান্তে বিপদ ডেকে আনেন। ভারতীয় শাস্ত্রমতে, গ’র্ভধারণ বা শা*রীরিক স’ম্পর্কের জন্য সপ্তাহের সব দিন সঠিক নয়।

সূত্র জানায়, সপ্তাহে বিশেষ ৩ দিন শা*রীরিক স’ম্পর্ক হলে জীবনে চরম বিপদ ঘনিয়ে আসতে পারে। তাই সপ্তাহের এই ৩ দিন ভুলেও শা*রীরিক স’ম্পর্ক করবেন না। প্রশ্ন জাগতে পারে, কেনই বা এরকম নিয়ম মানতে হবে? জেনে নিন বিস্তারিত

-শনিবার: সপ্তাহের প্রথম দিন শনিবার। এ দিন শা*রীরিক স’ম্পর্কে সন্তানের ওপর শনিদেবের কুপ্রকোপ পড়ে। সন্তানের ভেতরে নেতিবাচক চিন্তা-ভাবনা দেখা দিতে পারে। এছাড়া জীবনে নানা দুর্ঘ’টনার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

রোববার: সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন রোববার। কোন কিছুর সূচনার জন্য রোববারকে ‘অশুভ দিন’ বলে মানা হয়। এ দিন শা*রীরিক স’ম্পর্কে সন্তানের ওপর রবির অশুভ প্রভাব পড়ে। শি’শু অ’তিরিক্ত রাগি হয়ে উঠতে পারে।এছাড়া হৃদরোগ সংক্রান্ত কোনো অ’সুখে ভোগার আশ’ঙ্কাও রয়েছে।

মঙ্গলবার: সপ্তাহের চতুর্থ দিন মঙ্গলবার। এ দিন শা*রীরিক স’ম্পর্কে মঙ্গলের উপর কুপ্রভাব পড়ে। যার ফলে ভবিষ্যতে সন্তানের প্রতি নিষ্ঠুর নিয়তি দেখা দিতে পারে। সন্তান অসামাজিক কাজে যুক্ত হয়ে পড়ার আশ’ঙ্কাও থেকে যায়।

আরো পড়ুন, ঠোঁটের কালচে ভাব সব সৌন্দর্যকে যেন মাটি করে দেয়। আবার দাঁতের হলদে ভাবও হাসিকে মলিন করে দেয়। বয়সের পাশাপাশি এবং অ’ত্যাধিক সিগারেট সেবন করলে ঠোঁট কালো হয়ে যায় আবার দাঁতও উজ্জ্বলতা হারায়। এর একমাত্র সমাধাণ রয়েছে একটি উপাদানেই।ঠোঁটের এই কালো ভাব দূর করতে সহায়ক একমাত্র বেকিং সোডা। মধু এবং বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরী করুন। প্রতিদিন তিন মিনিট করে তা ঠোঁটে লাগিয়ে রাখু’ন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে রোজ করলে ঠোঁটের কালচেভাব দূর হবে।

দাঁতের উজ্জ্বলতা বাড়ায় বেকিং সোডা আবার বয়সের কারণে এবং ভাল করে দাঁত না মাজার ফলে খাবার জমে দাঁতে বিভিন্ন দাগের সৃষ্টি হয়। দাঁতের ওপর থেকে এই দাগ তোলার জন্য বেকিং সোডার ভূমিকা অসাধারণ। এক চিমটি বেকিং সোডা নিয়ে তাতে কয়েক ফোঁটা পানি মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি তৈরী করে দাঁতে ঘষতে থাকুন কিছুক্ষণ। পরে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here