নির্বাচনের নামে দেশে তামাশা চলছে বলে মন্তব্য করে বিএনপি মহাস’চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই স’রকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে কারচুপির অ’ভিযোগ তুলে এর প্র’তিবাদে ও ফলাফল বাতিলের দাবিতে সোমবার (১৯ অক্টোবর) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় আয়োজিত বি’ক্ষো’ভ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

টালবাহা’না বাদ দিয়ে অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্দলীয় স’রকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে ক্ষ’মতাসীনদের প্রতি আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে শুরু হওয়া এ কর্মসূচিতে যোগ দেন রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা বিএনপি ও এর অ’ঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। কর্মী-সমর্থকদের ভিড়ে রাস্তায় যানবাহন ও মানুষজনের চলাচলে স’মস্যা দেখা দেয়।

কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে প্রেসক্লাব এলাকার নিরাপত্তাব্যবস্থা জো’রদার করা হয়।প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলা এ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নির্বাচন কমিশনের ক’ঠোর সমালোচনা করেন। নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বশীলদের কোনো লাজলজ্জা নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই স’রকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীনে যে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়, তা প্রমাণ করতেই বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয়।
ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে ৫ শতাংশেরট পড়েনি নির্বাচনের নামে দেশে তামাশা চলছে বলে মন্তব্য করে বিএনপি মহাস’চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই স’রকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়।
বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাস’চিব।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে কারচুপির অ’ভিযোগ তুলে এর প্র’তিবাদে ও ফলাফল বাতিলের দাবিতে সোমবার (১৯ অক্টোবর) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় আয়োজিত বি’ক্ষো’ভ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

টালবাহা’না বাদ দিয়ে অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্দলীয় স’রকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে ক্ষ’মতাসীনদের প্রতি আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে শুরু হওয়া এ কর্মসূচিতে যোগ দেন রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা বিএনপি ও এর অ’ঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। কর্মী-সমর্থকদের ভিড়ে রাস্তায় যানবাহন ও মানুষজনের চলাচলে স’মস্যা দেখা দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here