ময়লার ঝুড়ি থেকে কেটে নেয়া পুরুষাঙ্গ বের করে দেন স্ত্রী

বাংলাদেশ পু’লিশে এসআই পদে কর্ম’রত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কে’টে দিয়েছেন রুপসী দেওয়ান নামের এক নারী। বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজশাহী নগরের সাগরপাড়া এলাকাস্থ ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। ভু’ক্তভো’গীর নাম ইফতেখার আল-আমিন। তিনি বোয়ালিয়া মডেল থা’নার মালোপাড়া পু’লিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই হিসেবে কর্ম’রত।

ঘটনার পরই তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে। আর তাঁর স্ত্রী’ রুপসী দেওয়ানকে আ’ট’ক করে হেফাজতে নিয়েছে পু’লিশ। রামেক হাসপাতা’লের ২নং ওয়ার্ডে কর্ম’রত চিকিৎসক আহমেদ উল্লাহ জানান, এসআই ইফতেখারের পুরুষাঙ্গ শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

আর এ জন্য অ’তিরিক্ত র’ক্তক্ষরণ হয়েছে। রোগীর অবস্থা ভালো বর্তমানে নয়। তাই তাকে ঢাকায় নেয়ার পরাম’র্শ দেয়া হয়। যে কারণে রাত ৮টার দিকে তাকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয় হাসপাতা’লের অ্যাম্বুলেন্স। বোয়ালিয়া মডেল থা’নার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, বিকেলে এসআই ইফতেখার আল-আমিন ভাড়া বাসায় ঘুমিয়ে ছিলেন।

পারিবারিক কলহের জেরে তাঁর স্ত্রী’ ধারালো অ’স্ত্র দিয়ে তাঁর পুরুষাঙ্গ কে’টে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। পরে স্থানীয়রা তাঁকে উ’দ্ধার করে রামেক হাসপাতা’লের জরুরী বিভাগে ভর্তি করে। সেখান থেকে তাকে নেয়া হয় হাসপাতা’লের ২ নম্বর ওয়ার্ডে। অবস্থার অবনতি হলে নেয়া হয় অ’পারেশন থিয়েটারে।

ওসি আরও বলেন, রুপসী দেওয়ান স্বামীর পুরুষাঙ্গ কে’টে নেয়ার কথা স্বীকার করেছেন এবং বাসার ময়লার ঝুড়ি থেকে সেটি তিনি বেরও করে দেন। রুপসীর দাবি, তাঁর স্বামীর একাধিক নারীর সঙ্গে অ’নৈতিক স’ম্পর্ক রয়েছে।

সেই ক্ষোভ থেকে তিনি এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ আরও বলেন, রুপসীকে আ’ট’ক করে পু’লিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। প্রচলিত আইনেই তাঁর বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাংলাদেশ পু’লিশে এসআই পদে কর্ম’রত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কে’টে দিয়েছেন রুপসী দেওয়ান নামের এক নারী। বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজশাহী নগরের সাগরপাড়া এলাকাস্থ ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। ভু’ক্তভো’গীর নাম ইফতেখার আল-আমিন। তিনি বোয়ালিয়া মডেল থা’নার মালোপাড়া পু’লিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই হিসেবে কর্ম’রত।

ঘটনার পরই তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে। আর তাঁর স্ত্রী’ রুপসী দেওয়ানকে আ’ট’ক করে হেফাজতে নিয়েছে পু’লিশ। রামেক হাসপাতা’লের ২নং ওয়ার্ডে কর্ম’রত চিকিৎসক আহমেদ উল্লাহ জানান, এসআই ইফতেখারের পুরুষাঙ্গ শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

আর এ জন্য অ’তিরিক্ত র’ক্তক্ষরণ হয়েছে। রোগীর অবস্থা ভালো বর্তমানে নয়। তাই তাকে ঢাকায় নেয়ার পরাম’র্শ দেয়া হয়। যে কারণে রাত ৮টার দিকে তাকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয় হাসপাতা’লের অ্যাম্বুলেন্স। বোয়ালিয়া মডেল থা’নার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, বিকেলে এসআই ইফতেখার আল-আমিন ভাড়া বাসায় ঘুমিয়ে ছিলেন।

পারিবারিক কলহের জেরে তাঁর স্ত্রী’ ধারালো অ’স্ত্র দিয়ে তাঁর পুরুষাঙ্গ কে’টে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। পরে স্থানীয়রা তাঁকে উ’দ্ধার করে রামেক হাসপাতা’লের জরুরী বিভাগে ভর্তি করে। সেখান থেকে তাকে নেয়া হয় হাসপাতা’লের ২ নম্বর ওয়ার্ডে। অবস্থার অবনতি হলে নেয়া হয় অ’পারেশন থিয়েটারে।

ওসি আরও বলেন, রুপসী দেওয়ান স্বামীর পুরুষাঙ্গ কে’টে নেয়ার কথা স্বীকার করেছেন এবং বাসার ময়লার ঝুড়ি থেকে সেটি তিনি বেরও করে দেন। রুপসীর দাবি, তাঁর স্বামীর একাধিক নারীর সঙ্গে অ’নৈতিক স’ম্পর্ক রয়েছে।

সেই ক্ষোভ থেকে তিনি এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ আরও বলেন, রুপসীকে আ’ট’ক করে পু’লিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। প্রচলিত আইনেই তাঁর বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

About admin

Check Also

ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে বিদেশির ‘দুর্ব্যবহার’, ভিডিও ভাইরাল

রাজধানীর তেজগাঁও ট্রাফিক বিভাগের অধীন থাকা রাওয়া ক্লাবের সামনের রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্যকে লক্ষ্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *