কলা বাগানে স্কুলছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও তুমুল ভাইরাল, (ভিডিও)

কলাবাগানে এক সুন্দরী স্কুল ছাত্রীর সাথে এক তরুণের ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে, ভিডিওটিতে দেখা যায় কলাবাগানে ওই সুন্দরী স্কুল ছাত্রীকে প্রেমালাপ চলতেছে।কোন একটি চরিত্র নিয়ে অভিনয় করেছেন এই দুই তরুন-তরুনী, ইতিমধ্যে তাদের ওই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে সাড়া ফেলেছে, তুমুল ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি, ভিডিওটি উপভোগ করুন আর আমাদের সাথেই থাকুন…

পূর্ণিমার প্রশ্ন- শিক্ষকতা, গান, অভিনয়, উপস্থাপনা, সুন্দরী প্রতিযোগিতার বিচারকাজ কী না করেছেন তাহসান খান। একটা মানুষের এত প্রতিভা কেন থাকতে হবে? তাহলে নাচটা বাদ যাবে কেন?

উত্তরে তাহসান খান লজ্জা পেয়ে বলেন, ‘এই একটা জায়গায় আমি একেবারেই কাঁচা।’ তৎক্ষণাৎ পূর্ণিমার প্রশ্ন, তাহলে দীপিকার সঙ্গে নাচতে হলো কেন? তাহসানও কম যান না।

তার ভাষ্য, ‘দীপিকা পাড়ুকোন এমনভাবে অনুরোধ করেছিল, না করতে পারিনি। যে কারণে আমার করতে হয়েছিলো। এছাড়া ওই শো-তে আমরা মানুষকে আনন্দ দিচ্ছিলাম। তাই করতে হয়েছে।’

মূলত এ প্রশ্ন করে ২০১৫ সালে লাক্সের আয়োজনের সেই স্মৃতিকে সামনে আনলেন পূর্ণিমা। সেবার বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন ঢাকায় এলে সেই অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন তাহসান খান।

সেই মঞ্চে দীপিকার সঙ্গে একটা গানে কিছুক্ষণ নাচও পরিবেশন করেন তিনি। তাদের নাচের দৃশ্য এখনো অনেক দর্শকের মনে গেঁথে আছে। বেশ কিছু বড় অনুষ্ঠানে উপস্থাপকের দায়িত্ব পালন করেছেন তাহসান।

উপস্থাপক তাহসানকে কত নম্বর দেবেন? পূর্ণিমার এ প্রশ্নের জবাবে তাহসান বলেন, ‘আমি অনেক বছর শিক্ষকতা করেছি। যখন অনেক মানুষ সামনে বসে থাকে আর আমার কথা বলতে হয়, তখন আমি খুব শিক্ষকসুলভ কথা বলি।

নিজেকে গায়ক ও নায়ক হিসেবে যত নম্বর দেব, উপস্থাপক হিসেবে তত দেব না। কারণ আমি উপস্থাপনা করতে গেলেও শিক্ষকতা শুরু করি, লেকচার দিতে শুরু করি। আমার উপস্থাপনায় মানুষ বিনোদন পায় না, লেকচার বেশি শুনতে হয়।’

মূলত এ প্রশ্ন করে ২০১৫ সালে লাক্সের আয়োজনের সেই স্মৃতিকে সামনে আনলেন পূর্ণিমা। সেবার বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন ঢাকায় এলে সেই অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন তাহসান খান।

সেই মঞ্চে দীপিকার সঙ্গে একটা গানে কিছুক্ষণ নাচও পরিবেশন করেন তিনি। তাদের নাচের দৃশ্য এখনো অনেক দর্শকের মনে গেঁথে আছে। বেশ কিছু বড় অনুষ্ঠানে উপস্থাপকের দায়িত্ব পালন করেছেন তাহসান।

উপস্থাপক তাহসানকে কত নম্বর দেবেন? পূর্ণিমার এ প্রশ্নের জবাবে তাহসান বলেন, ‘আমি অনেক বছর শিক্ষকতা করেছি। যখন অনেক মানুষ সামনে বসে থাকে আর আমার কথা বলতে হয়, তখন আমি খুব শিক্ষকসুলভ কথা বলি।

নিজেকে গায়ক ও নায়ক হিসেবে যত নম্বর দেব, উপস্থাপক হিসেবে তত দেব না। কারণ আমি উপস্থাপনা করতে গেলেও শিক্ষকতা শুরু করি, লেকচার দিতে শুরু করি। আমার উপস্থাপনায় মানুষ বিনোদন পায় না, লেকচার বেশি শুনতে হয়।’

About admin

Check Also

আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার মৌসুমীর ঘরে শোকের ছায়া

সপ্তাহ খানেক আগেই অর্থাৎ ২৬ তারিখ খুবই আনন্দের সাথে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় জুটিমৌসুমী ও ওমর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.