ধ’র্মে’র কা’রণে অ’ভিনয় ছেড়ে আ’বারও যে কা’রনে ফি’রতে হল অ’ভিনেত্রী এ্যা’নি খানকে

অভিনয় ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন মডেল ও অভিনেত্রী এ্যানি খান। দীর্ঘ ২৩ বছরের মিডিয়া ক্যারিয়ারের পাঠ শেষ করেছেন তিনি।একজন সাধারণ ধার্মিক মানুষ হিসেবে বাকি জীবন কা’টানোর পরিকল্পনা নিয়েছেন। সম্প্রতি গণমাধ্যমকে নিজের অভিনয় ছাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এই অভিনেত্রী নিজেই।কিন্তু হঠাৎ জানা

গেল তিনি ফিরে এসেছেন আবার শোবিজে। হাসান জাহাঙ্গীর পরিচালিত ধারাবাহিক চা’পাবা’জ’র শুটিং করেছেন। আবার যদি নিয়মিতই হবেন তাহলে শোবিজ ছাড়লেন কেন? সেই খোঁজ নিতে গিয়ে জানা

গেল ফিরেছেন, তবে সাময়িক এই ফেরার। পরিচালক হাসান জাহাঙ্গীর জানান, তার নাটকের অসমাপ্ত কাজ শেষ করতেই আবারও শুটিং করেছেন এ্যানি খান। আদতে এখনো তিনি শোবিজে না ফেরার

সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। তবে এই নির্মাতা যোগ করেন, কোভিড মহামারি শেষ হয়ে যাওয়ার পর এ্যানি আবারও গ্ল্যামার জগতে নিয়মিত হবেন। কিন্তু এ ব্যাপারে অভিনেত্রীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এর

আগে ২০ জুন ফেসবুক লাইভে এসে এ্যানি খান বলেন, ‘গত বছর থেকে মিডিয়া ছাড়ার পরিকল্পনা করছি, চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে নিজের মধ্যে সিদ্ধান্তটা বেশি করে নাড়া দিতে থাকে। মার্চের ১৯

তারিখ শেষবার শুটিং করেছি। তারপর করো’নায় সবকিছু বন্ধ। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছি, নফল নামাজ পড়ছি, কোরআন হাদিস পড়ছি। অনেক কিছু থেকে পিছিয়ে ছিলাম শিখছি। আর মিডিয়া

আমাকে টানছে না, তাই এই পেশা থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম।’ এ্যানি খান আরও বলেন, ‘প্রতিদিন মৃ’ত্যুর খবর যেভাবে শুনছি, এত মৃ’ত্যুর খবর আগে শুনিনি। এরমধ্যে আমা’র

বাবাকে হারিয়েছি, আরও অনেক কাছের মানুষ চলে যাচ্ছে। আমি একজন মুসলিম। মুসলিম হিসেবে ধর্মীয় বিষয়গুলো যতোই জানার চেষ্টা করছি ততই ধর্ম বিষয়ক জ্ঞান বাড়ছে। এতে করে অনেক কিছুতে

বিধিনিষেধ চলে আসছে। দু মিনিট পরে আমি বাঁচবো কিনা জানিনা। মৃ’ত্যুর পরে অনন্ত কালের জন্য আমি কি সঞ্চয় করলাম? এ সবকিছু চিন্তাভাবনা মিলিয়ে আমি আর মিডিয়ার কাজে ফিরতে চাইছি না।এজন্য কেউ আমাকে ভ’ণ্ড বলতে পারেন, খারাপ বলতে পারেন। তাতে আমা’র কিছু যায় আসে না।’

সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। তবে এই নির্মাতা যোগ করেন, কোভিড মহামারি শেষ হয়ে যাওয়ার পর এ্যানি আবারও গ্ল্যামার জগতে নিয়মিত হবেন। কিন্তু এ ব্যাপারে অভিনেত্রীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এর

আগে ২০ জুন ফেসবুক লাইভে এসে এ্যানি খান বলেন, ‘গত বছর থেকে মিডিয়া ছাড়ার পরিকল্পনা করছি, চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে নিজের মধ্যে সিদ্ধান্তটা বেশি করে নাড়া দিতে থাকে। মার্চের ১৯

তারিখ শেষবার শুটিং করেছি। তারপর করো’নায় সবকিছু বন্ধ। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছি, নফল নামাজ পড়ছি, কোরআন হাদিস পড়ছি। অনেক কিছু থেকে পিছিয়ে ছিলাম শিখছি। আর মিডিয়া

আমাকে টানছে না, তাই এই পেশা থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম।’ এ্যানি খান আরও বলেন, ‘প্রতিদিন মৃ’ত্যুর খবর যেভাবে শুনছি, এত মৃ’ত্যুর খবর আগে শুনিনি। এরমধ্যে আমা’র

বাবাকে হারিয়েছি, আরও অনেক কাছের মানুষ চলে যাচ্ছে। আমি একজন মুসলিম। মুসলিম হিসেবে ধর্মীয় বিষয়গুলো যতোই জানার চেষ্টা করছি ততই ধর্ম বিষয়ক জ্ঞান বাড়ছে। এতে করে অনেক কিছুতে

বিধিনিষেধ চলে আসছে। দু মিনিট পরে আমি বাঁচবো কিনা জানিনা। মৃ’ত্যুর পরে অনন্ত কালের জন্য আমি কি সঞ্চয় করলাম? এ সবকিছু চিন্তাভাবনা মিলিয়ে আমি আর মিডিয়ার কাজে ফিরতে চাইছি না।এজন্য কেউ আমাকে ভ’ণ্ড বলতে পারেন, খারাপ বলতে পারেন। তাতে আমা’র কিছু যায় আসে না।’

About admin

Check Also

দীঘি আমার ছোট বোন: তৌহিদ আফ্রিদি

একসময়ের জনপ্রিয় শিশুশিল্পী দীঘি এখন প্রাপ্তবয়স্ক নায়িকা। ইতোপূর্বে নায়িকা হিসেবে তারঅভিষেক হয়েছে। কাজ করেছেন কয়েকটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.