মুরাদের চেয়ে জঘন্য কথা বলেছেন বিএনপির আলাল: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ডা. মুরাদ হাসানের চেয়ে আরও ঘৃণ্য ও জঘন্য কথা বলেছেন বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। আজ সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে ধানমন্ডিতে দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদক মণ্ডলীর সভা শেষে এ প্রশ্ন তোলেন তিনি।

তিনি বলেন, মুরাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তবে শাস্তি দেয়া তো দূরের কথা, বিএনপি আলালকে নৈতিক সমর্থন দিয়েছে। এটা হলো আওয়ামী লীগের সঙ্গে তাদের পার্থক্য।

তিনি বলেন, এত অশ্রাব্য ও অশোভন বক্তব্য কী করে মির্জা ফখরুল সমর্থন করেন। আমরাতো মুরাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়েছি। কিন্তু তারা আলালকে বহিষ্কারতো দূরের কথা, বরং নৈতিক সমর্থন দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের এই নিষেধাজ্ঞায় কোনো ষড়যন্ত্র দেখছেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ষড়যন্ত্রের বিষয় তো অবশ্যই আছে। বিজয়ের মাসে যুক্তরাষ্ট্রের যে বক্তব্য তা দেশের জঙ্গিবাদ, তাদের পৃষ্ঠপোষক এবং সন্ত্রাসীদেরকে উৎসাহিত করছে। র‌্যাব প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি গতকাল দলের বক্তব্য দিয়েছি। এ বিষয় নিয়ে আর ঘাঁটাঘাঁটি করতে চাই না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ডা. মুরাদ হাসানের চেয়ে আরও ঘৃণ্য ও জঘন্য কথা বলেছেন বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। আজ সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে ধানমন্ডিতে দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদক মণ্ডলীর সভা শেষে এ প্রশ্ন তোলেন তিনি।

তিনি বলেন, মুরাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তবে শাস্তি দেয়া তো দূরের কথা, বিএনপি আলালকে নৈতিক সমর্থন দিয়েছে। এটা হলো আওয়ামী লীগের সঙ্গে তাদের পার্থক্য।

তিনি বলেন, এত অশ্রাব্য ও অশোভন বক্তব্য কী করে মির্জা ফখরুল সমর্থন করেন। আমরাতো মুরাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়েছি। কিন্তু তারা আলালকে বহিষ্কারতো দূরের কথা, বরং নৈতিক সমর্থন দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের এই নিষেধাজ্ঞায় কোনো ষড়যন্ত্র দেখছেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ষড়যন্ত্রের বিষয় তো অবশ্যই আছে। বিজয়ের মাসে যুক্তরাষ্ট্রের যে বক্তব্য তা দেশের জঙ্গিবাদ, তাদের পৃষ্ঠপোষক এবং সন্ত্রাসীদেরকে উৎসাহিত করছে। র‌্যাব প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি গতকাল দলের বক্তব্য দিয়েছি। এ বিষয় নিয়ে আর ঘাঁটাঘাঁটি করতে চাই না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ডা. মুরাদ হাসানের চেয়ে আরও ঘৃণ্য ও জঘন্য কথা বলেছেন বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। আজ সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে ধানমন্ডিতে দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদক মণ্ডলীর সভা শেষে এ প্রশ্ন তোলেন তিনি।

তিনি বলেন, মুরাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তবে শাস্তি দেয়া তো দূরের কথা, বিএনপি আলালকে নৈতিক সমর্থন দিয়েছে। এটা হলো আওয়ামী লীগের সঙ্গে তাদের পার্থক্য।

তিনি বলেন, এত অশ্রাব্য ও অশোভন বক্তব্য কী করে মির্জা ফখরুল সমর্থন করেন। আমরাতো মুরাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়েছি। কিন্তু তারা আলালকে বহিষ্কারতো দূরের কথা, বরং নৈতিক সমর্থন দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের এই নিষেধাজ্ঞায় কোনো ষড়যন্ত্র দেখছেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ষড়যন্ত্রের বিষয় তো অবশ্যই আছে। বিজয়ের মাসে যুক্তরাষ্ট্রের যে বক্তব্য তা দেশের জঙ্গিবাদ, তাদের পৃষ্ঠপোষক এবং সন্ত্রাসীদেরকে উৎসাহিত করছে। র‌্যাব প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি গতকাল দলের বক্তব্য দিয়েছি। এ বিষয় নিয়ে আর ঘাঁটাঘাঁটি করতে চাই না।

About admin

Check Also

আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে মহিউদ্দিন রনি

বাংলাদেশ রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা পরিবর্তনে ৬ দফা দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনায় আওয়ামী লীগের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.