দীর্ঘদিন পর শিক্ষককে কাছে পেয়ে আবেগাপ্লুত রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান

ছাত্র শিক্ষককে শ্রদ্ধা করবে। ভালোবাসতে হবে। ভালো না বাসলেও ঐ শিক্ষক অবস্থানটার জন্য শ্রদ্ধা তাকে করতে হবে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে নবাবগঞ্জ টাউন হাইস্কুলে উপস্থিত হন রাজশাহী মাধ্যমিক

ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক হাবিবুর রহমান।এসময় দেখা পান প্রাথমিক শাখায় তার একমাত্র জীবিত শিক্ষক মনিমুল হকের। এরপরই অধ্যাপক হাবিব তার শিক্ষকের পা ছুঁয়ে সালাম করেন।

শিক্ষক মনিমুল হকও তার স্নেহের ছাত্রকে জড়িয়ে ধরেন। এসময় ছাত্র এবং শিক্ষক উভয়েই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। সেসময় উপস্থিত ওই স্কুলের সাবেক ছাত্র, শিক্ষক এবং পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও বর্তমান সদস্যরা অশ্রুজল নয়নে সেই দৃশ্য প্রত্যক্ষ করেন।এসময় শিক্ষক মনিমুল হক অধ্যাপক হাবিবকে আশীর্বাদ করেন। অধ্যাপক হাবিবও তার প্রিয় শিক্ষক মনিমুল হকের দীর্ঘায়ু এবং সুস্বাস্থ্য কামনা করেন।

ছাত্র শিক্ষককে শ্রদ্ধা করবে। ভালোবাসতে হবে। ভালো না বাসলেও ঐ শিক্ষক অবস্থানটার জন্য শ্রদ্ধা তাকে করতে হবে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে নবাবগঞ্জ টাউন হাইস্কুলে উপস্থিত হন রাজশাহী মাধ্যমিক

ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক হাবিবুর রহমান।এসময় দেখা পান প্রাথমিক শাখায় তার একমাত্র জীবিত শিক্ষক মনিমুল হকের। এরপরই অধ্যাপক হাবিব তার শিক্ষকের পা ছুঁয়ে সালাম করেন।

শিক্ষক মনিমুল হকও তার স্নেহের ছাত্রকে জড়িয়ে ধরেন। এসময় ছাত্র এবং শিক্ষক উভয়েই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। সেসময় উপস্থিত ওই স্কুলের সাবেক ছাত্র, শিক্ষক এবং পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও বর্তমান সদস্যরা অশ্রুজল নয়নে সেই দৃশ্য প্রত্যক্ষ করেন।এসময় শিক্ষক মনিমুল হক অধ্যাপক হাবিবকে আশীর্বাদ করেন। অধ্যাপক হাবিবও তার প্রিয় শিক্ষক মনিমুল হকের দীর্ঘায়ু এবং সুস্বাস্থ্য কামনা করেন।

ছাত্র শিক্ষককে শ্রদ্ধা করবে। ভালোবাসতে হবে। ভালো না বাসলেও ঐ শিক্ষক অবস্থানটার জন্য শ্রদ্ধা তাকে করতে হবে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে নবাবগঞ্জ টাউন হাইস্কুলে উপস্থিত হন রাজশাহী মাধ্যমিক

ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক হাবিবুর রহমান।এসময় দেখা পান প্রাথমিক শাখায় তার একমাত্র জীবিত শিক্ষক মনিমুল হকের। এরপরই অধ্যাপক হাবিব তার শিক্ষকের পা ছুঁয়ে সালাম করেন।

শিক্ষক মনিমুল হকও তার স্নেহের ছাত্রকে জড়িয়ে ধরেন। এসময় ছাত্র এবং শিক্ষক উভয়েই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। সেসময় উপস্থিত ওই স্কুলের সাবেক ছাত্র, শিক্ষক এবং পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও বর্তমান সদস্যরা অশ্রুজল নয়নে সেই দৃশ্য প্রত্যক্ষ করেন।এসময় শিক্ষক মনিমুল হক অধ্যাপক হাবিবকে আশীর্বাদ করেন। অধ্যাপক হাবিবও তার প্রিয় শিক্ষক মনিমুল হকের দীর্ঘায়ু এবং সুস্বাস্থ্য কামনা করেন।

About admin

Check Also

শুধু কলেমা পড়ছিলাম। মনে হচ্ছিল, বাচ্চাদের মুখ বুঝি আর দেখা হলো না…

কা-রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জগামী একটি বাসে ডাকাতদের কবলে পড়েন টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শফিকুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *