স্ত্রী আমার, গর্ভের সন্তান কারঃ প্রশ্ন রাকিবের

আলোচনা- সমালোচনা যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না নাসির-তামিমাকে। সোমবার (২০ ডিসেম্বর) খবর প্রকাশ হয়েছে তামিমা গর্ভবতী। যা আদালতের এজলাসে উপস্থাপন করা হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে রাকিব প্রশ্ন তুলছেন- তামিমা এখনও আমার স্ত্রী। গত ১০ মাস তার সঙ্গে আমার একান্তে সময় কাটেনি। এমন পরিস্থিতিতে সে কেমন করে গর্ভবতী হলো? ক্রিকেটার নাসিরের সঙ্গে তার যে বিয়ে হয়েছে, সেটি অবৈধ। যে কারণে আমি মামলা দায়ের করেছি।

পিবিআই’র তদন্ত প্রতিবেদনে আমার অভিযোগের সত্যতা বেরিয়ে এসেছে। আদালতে এই মামলা নিষ্পত্তির আগে কেমন করে আমার স্ত্রী তামিমা অন্য পুরুষের সঙ্গ নিয়ে মা হতে চলছে! এখন আমার একটাই প্রশ্ন- স্ত্রী আমার, তাহলে তার গর্ভের সন্তান কার?

নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে ‘অবৈধ বিয়ের’ মামলা তদন্ত শেষে গত ৩০ সেপ্টেম্বর আদালতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)দাখিল করা চার্জশীটের ভাষ্য অনুযায়ী, তামিমা রাকিবকে তালাক দেননি। লিগ্যালভাবে রাকিব তালাকের কোনও নোটিশও পাননি।

তামিমা উল্টো জাল জালিয়াতি করে তালাকের নোটিশ তৈরি করে তা বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন। যথাযথ প্রক্রিয়ায় তালাক না দেয়ার ফলে তামিমা সুলতানা এখনও রাকিবের স্ত্রী বহাল রয়েছেন।

দেশের ধর্মীয় বিধিবিধান ও আইন অনুযায়ী এক স্বামীকে তালাক না দিয়ে অন্য কাউকে বিয়ে করা অবৈধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এমন পরিস্থিতিতে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমার বিয়ে অবৈধ।

এসব বিষয়ে বিস্তারিত মন্তব্য করে রাকিব হাসান বলেন, আমার দায়ের করা মামলায় হাজিরা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আদালতে গতকাল একটি আবেদনপত্র জমা দিয়েছে তামিমা।

যেখানে তিনি নিজেকে গর্ভবতী বলে উল্লেখ করেছে। তবে আদালতে সেটি গ্রহণ করেনি। এমন পরিস্থিতিতে আমি বারবার বলতে চাই- তামিমা সুলতানা এখনও আমার স্ত্রী। আমি তাকে ডিভোর্স দেইনি।

নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে ‘অবৈধ বিয়ের’ মামলা তদন্ত শেষে গত ৩০ সেপ্টেম্বর আদালতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)দাখিল করা চার্জশীটের ভাষ্য অনুযায়ী, তামিমা রাকিবকে তালাক দেননি। লিগ্যালভাবে রাকিব তালাকের কোনও নোটিশও পাননি।

তামিমা উল্টো জাল জালিয়াতি করে তালাকের নোটিশ তৈরি করে তা বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন। যথাযথ প্রক্রিয়ায় তালাক না দেয়ার ফলে তামিমা সুলতানা এখনও রাকিবের স্ত্রী বহাল রয়েছেন।

দেশের ধর্মীয় বিধিবিধান ও আইন অনুযায়ী এক স্বামীকে তালাক না দিয়ে অন্য কাউকে বিয়ে করা অবৈধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এমন পরিস্থিতিতে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমার বিয়ে অবৈধ।

এসব বিষয়ে বিস্তারিত মন্তব্য করে রাকিব হাসান বলেন, আমার দায়ের করা মামলায় হাজিরা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আদালতে গতকাল একটি আবেদনপত্র জমা দিয়েছে তামিমা।

যেখানে তিনি নিজেকে গর্ভবতী বলে উল্লেখ করেছে। তবে আদালতে সেটি গ্রহণ করেনি। এমন পরিস্থিতিতে আমি বারবার বলতে চাই- তামিমা সুলতানা এখনও আমার স্ত্রী। আমি তাকে ডিভোর্স দেইনি।

About admin

Check Also

স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকসহ হোটেলে হাতেনাতে ধরলেন স্বামী

রাজশাহীতে পরকীয়ার সময় স্ত্রীর প্রেমিকসহ হাতেনাতে ধরে পুলিশে দিয়েছে স্বামী। আজ মঙ্গলবার (২৪ মে) দুপুরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.