এক রাকাতে কোরআন খতম সিরিয়ান তরুণের

নামাজের এক রাকাতেই পবিত্র কোরআন খতম করেছেন সিরিয়ান বংশোদ্ভূত এক তরুণ। এতে সময় লেগেছে সাত ঘণ্টা। তরুণের নাম আবদুর রহমান আল নাবহান। তাঁর বয়স ২০ বছর। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবের এক ভিডিওতে আবদুর রহমান জানান, তিনি নামাজের এক রাকাতেই পবিত্র কোরআন খতম করেছেন।

আবদুর রহমান বর্তমানে তুরস্কের কোনিয়া শহরে বাস করেন এবং স্থানীয় সেলজু বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকে মনোবিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা করছেন। মূলত তিনি সিরিয়ার ঐতিহাসিক হালব শহরের অধিবাসী।

রাতের বেলা নামাজে পুরো কোরআন খতম করা তাঁর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল। কেননা ইসলামের তৃতীয় খলিফা উসমান বিন আফফান (রা.) তাহাজ্জুদ নামাজের এক রাকাতে পুরো কোরআন শেষ করেছেন বলে হাদিসের বর্ণনায় এসেছে।

নামাজের এক রাকাতেই পবিত্র কোরআন খতম করেছেন সিরিয়ান বংশোদ্ভূত এক তরুণ। এতে সময় লেগেছে সাত ঘণ্টা। তরুণের নাম আবদুর রহমান আল নাবহান। তাঁর বয়স ২০ বছর। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবের এক ভিডিওতে আবদুর রহমান জানান, তিনি নামাজের এক রাকাতেই পবিত্র কোরআন খতম করেছেন।

আবদুর রহমান বর্তমানে তুরস্কের কোনিয়া শহরে বাস করেন এবং স্থানীয় সেলজু বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকে মনোবিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা করছেন। মূলত তিনি সিরিয়ার ঐতিহাসিক হালব শহরের অধিবাসী।

রাতের বেলা নামাজে পুরো কোরআন খতম করা তাঁর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল। কেননা ইসলামের তৃতীয় খলিফা উসমান বিন আফফান (রা.) তাহাজ্জুদ নামাজের এক রাকাতে পুরো কোরআন শেষ করেছেন বলে হাদিসের বর্ণনায় এসেছে।

আবদুর রহমান অবশ্য এর আগেও বহুবার এক রাকাতে কোরআন খতম করার চেষ্টা করেছেন, তবে তা করতে সক্ষম হননি। জানা যায়, রাত ১১টায় তিনি নামাজে দাঁড়ান। এরপর দীর্ঘ সাত ঘণ্টা পর সকাল ৬টায় তিনি কোরআন খতম করে নামাজ শেষ করেন।

তিনি এমন সময় নির্বাচন করেন, যে সময়ে ক্লান্তি ও পরিশ্রম কম হবে এবং পুরো কোরআন শেষ করা সম্ভব হবে। তাই শীতের রাতের সময়কে বেছে নেন। তিনি জানান, এ ছাড়া নামাজের স্থান হিসেবে মসজিদকে বেছে নেন তিনি। কেননা ঘরে সময় নষ্টের আশঙ্কা থাকে। নামাজ শেষ করে পরিবার, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধবসহ সবার জন্য দোয়া করেন তিনি।

আবদুর রহমান অবশ্য এর আগেও বহুবার এক রাকাতে কোরআন খতম করার চেষ্টা করেছেন, তবে তা করতে সক্ষম হননি। জানা যায়, রাত ১১টায় তিনি নামাজে দাঁড়ান। এরপর দীর্ঘ সাত ঘণ্টা পর সকাল ৬টায় তিনি কোরআন খতম করে নামাজ শেষ করেন।

তিনি এমন সময় নির্বাচন করেন, যে সময়ে ক্লান্তি ও পরিশ্রম কম হবে এবং পুরো কোরআন শেষ করা সম্ভব হবে। তাই শীতের রাতের সময়কে বেছে নেন। তিনি জানান, এ ছাড়া নামাজের স্থান হিসেবে মসজিদকে বেছে নেন তিনি। কেননা ঘরে সময় নষ্টের আশঙ্কা থাকে। নামাজ শেষ করে পরিবার, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধবসহ সবার জন্য দোয়া করেন তিনি।

উল্লেখ্য, পবিত্র কোরআনে ৩০টি পারা ও ২৪০টি রুকু রয়েছে। এর আয়াত সংখ্যা ৬২৩৬।

সূত্র : আল শারাক ও আল ইমারাত আল ইয়াওম

About admin

Check Also

নতুন আইনঃ পুরুষদের ন্যূনতম দুটি বিয়ে না করলেই যাবজ্জীবন জেল হবে

আফ্রিকার ছোট্ট দেশ এরিত্রিয়ার সমস্ত পু’রুষকে ন্যূনতম দু’টি বিবাহ করতেই হবে,যা আইনে স্প’ষ্ট করে বলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.