এক থাপ্পড়ে শাকিবের দাঁত ফেলে দেওয়া উচিত, বললেন ঝন্টু

শোবিজের একঝাঁক শিল্পী দেশ ছেড়ে বিদেশে স্থায়ী হয়েছেন। তাদের কেউ কেউ শীতের পাখি হয়ে দেশে ফেরেন, কিছুদিন বেড়ান-ঘুরেন সুযোগ হলে কাজও করেন। এ তালিকায় আছেন অভিনয়শিল্পী, সংগীতশিল্পী, নৃত্যশিল্পীসহ শোবিজের নানা অঙ্গনের মানুষ। এবার এ তালিকায় নাম লেখাতে চলছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান।

অভিনয়শিল্পী হিসেবে ইবি ক্যাটাগরির ভিসার জন্য আবেদন করেছেন শাকিব খান। তার সেই আবেদন গৃহীত হয়েছে।

একটি দক্ষ এজেন্সির মাধ্যমে শাকিব খান আবেদনটি করেছেন। যেখানে তার সবকিছু দেখাশোনা করছেন আমেরিকাপ্রবাসী নেপালি এক উকিল। শাকিবের আবেদন সবুজ সংকেত পাওয়ায় এই উকিল প্রত্যাশা করছেন শিগগির তার মক্কেলের হাতে আমেরিকার গ্রিন কার্ড পৌঁছে দিতে পারবেন।তবে এখনও বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেননি শাকিব খান।

এদিকে, শাকিব খান যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করার কারণে বিপাকে পড়েছেন ‘গলুই’ সিনেমার নির্মাতা এস এ হক অলিক। কারণ শাকিব সিনেমাটির শুটিং শেষ করলেও, বাকি ছিল ডাবিংয়ের কাজ। প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু চেয়েছিলেন, এটি চলতি মাসেই মুক্তি দিতে।

কিন্তু শাকিব খান ১৬ তম চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডসে অংশ নিয়ে ১২ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে যান।সেসময় নভেম্বর মাসেই তার দেশে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু শাকিব এখনো দেশে না ফেরায় বিপাকে পড়েছেন অন্য নির্মাতারাও। কারণ তার হাতে থাকা বেশ কিছু সিনেমার কাজ এখন অনিশ্চয়তার মধ্যে। শাকিবের এই দীর্ঘ সফর নিয়ে চলচ্চিত্রাঙ্গনে চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

গলুই’র প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু দেশের একটি গণমাধ্যমকে দেওয়ার এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমেরিকার একটি শোতে অংশ নিয়ে তার দ্রুত দেশে ফেরার কথা ছিল।

কিন্তু সেখানে থাকার জন্য তাকে কেউ না কেউ অনুপ্রাণিত করেছে। তাই সে দেশে ফিরতে সময় নিচ্ছে। আমাদের সিনেমা চলতি মাসেই মুক্তি দিতে চেয়েছিলাম। তাই বাধ্য হয়ে তার অংশের ডাবিং নিতে আমেরিকাতেই নির্মাতাকে পাঠাতে হয়েছে। এই খরচটা আমাদের জন্য বাড়তি।’

শাকিব খান যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়াতে যে, আলোচনা-সমালোচনা তৈরি হয়েছে চলচ্চিত্রপাড়ায়।এ বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, গীতিকবি, সুরকার, চিত্রনাট্যকার, কাহিনীকার, চলচ্চিত্র সম্পাদক, চিত্রগ্রাহক,

সঙ্গীত পরিচালক এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। তার ভাষ্য, ‘অল্প পানির মাছ বেশি পানিতে গেলে যা হয়। তারা নিজেকে অনেক বেশি কিছু মনে করেন। কাজ ফেলে ও (শাকিব খান) বিদেশ যাবে কেন, ও বললেই হবে?’

ক্ষোভ নিয়ে বর্ষীয়ান এই নির্মাতা বলেন, ‘ও (শাকিব খান) কাজ আটকে রেখে অন্য অনুষ্ঠানে অংশ নিতে দেশের বাইরে ঘুরতে যায়, কাউকে কিছু না বলেই। কত বড় সাহস, ডাবিং ছাড়া না বলে চলে যাওয়া। ও কেন বেড়াতে যাবে কাজ ফেলে। থাপ্পড়ে ওর দাঁত ফেলে দেওয়া উচিত!ওকে এফডিসিতে ঢোকার আগে ঘেরাও করে পেটানো উচিত! প্রোডাকশন বয়দের দিয়ে।’

শাকিব খানের ভয়েস নিতে চলতি মাসের ১০ তারিখ যুক্তরাষ্ট্রে ছুটে যান গলুই সিনেমার পরিচালক অলিক। আর ১১ তারিখ থেকে সেখানকার একটি স্টুডিওতে এর কাজ শুরু হয়।

সেসময় নির্মাতা অলিক বলেন, ‘বিজয় দিবস উপলক্ষে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলাম। নভেম্বরের শেষ দিকে শাকিবের দেশে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু তিনি না ফেরায় আমাকেই আসতে হলো আমেরিকায়। যদি এ সপ্তাহে ডাবিং শেষ করতে পারি, তাহলে আগামী সপ্তাহেই ছবিটি সেন্সরে জমা দেব। ছাড়পত্র পেলে যত দ্রুত সম্ভব মুক্তি দেব।’

ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা ও বিস্তীর্ণ এক জনপদের মানুষের জীবনের গল্পে নির্মিত হয়েছে ‘গলুই’ সিনেমাটি। সাধারণত সরকারি অনুদান পাওয়া ছবিগুলোর নিরবেই শুটিং হয়ে থাকে। কিন্তু গলুই ছবিতে শাকিব খান থাকায় দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র। এর আগে অনুদানের ছবি নিয়ে এত আলোচনা হতে দেখা যায়নি।এবারই প্রথম।

গলুইয়ে শাকিব খান অভিনয় করেছেন ‘লালু’ চরিত্রে। আর পূজা চেরি ‘মালা’ চরিত্রে।২০২০-২১ অর্থবছরে সরকারি অনুদান পাওয়া ছবি ‘গলুই’। প্রযোজনা করছেন খোরশেদ আলম খসরু এবং পরিচালনা করেছেন এস এ হক অলিক।

About admin

Check Also

আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার মৌসুমীর ঘরে শোকের ছায়া

সপ্তাহ খানেক আগেই অর্থাৎ ২৬ তারিখ খুবই আনন্দের সাথে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় জুটিমৌসুমী ও ওমর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.