মক্কায় সামাজিক দূরত্ব মানার লাইন মুছে ফেলা হয়েছে

সৌদি আরবের মক্কা ও মদিনাতে রবিবার থেকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্বের বিধি আর মানতে হবে না। অর্থাৎ, আগের চেয়ে অনেক বেশি মানুষ এখন একসঙ্গে মসজিদে ঢুকতে পারবেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

মসজিদ চত্বরের মেঝেতে সামাজিক দূরত্ব মানার যে লাইন আঁকা হয়েছিল, রবিবার তা-ও মুছে ফেলা হয়। তবে মসজিদে ঢোকার সময় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, দুটি টিকা নেওয়া থাকলে তবেই মক্কায় প্রবেশের অনুমতি পাওয়া যাবে। রবিবার সৌদি আরবের সরকারি সংবাদসংস্থা এসপিএ এই খবর জানিয়েছে।

সৌদি আরবের নাগরিকদের জন্যও বেশ কিছু নিয়ম শিথিল করা হয়েছে। আগেই খেলার মাঠগুলো খুলে দেওয়া হয়েছিল। এবার সেখানে দর্শক ঢোকার অনুমতি দেওয়া হলো। পাশাপাশি বলা হয়েছে, খোলা জায়গায় মাস্ক পরা আর বাধ্যতামূলক নয়। তবে ভিড় থাকলে মাস্ক পরতেই হবে।

নিয়ম খানিকটা শিথিল হলেও কাবার চারধারে যে ব্যারিকেড তৈরি করা হয়েছিল, এখনই তা তুলে ফেলা হবে না বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। করোনাকাল শুরু হওয়ার পর এই প্রথম দর্শনার্থীদের পুরোদস্তুর মসজিদে ঢোকার অনুমতি দিল কর্তৃপক্ষ। মনে করা হচ্ছে, এর ফলে আগামী কিছুদিন মানুষের ঢল নামবে এই পবিত্র মসজিদে। সূত্র: এসপিএ, রয়টার্স, আল-জাজিরা

সৌদি আরবের মক্কা ও মদিনাতে রবিবার থেকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্বের বিধি আর মানতে হবে না। অর্থাৎ, আগের চেয়ে অনেক বেশি মানুষ এখন একসঙ্গে মসজিদে ঢুকতে পারবেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

মসজিদ চত্বরের মেঝেতে সামাজিক দূরত্ব মানার যে লাইন আঁকা হয়েছিল, রবিবার তা-ও মুছে ফেলা হয়। তবে মসজিদে ঢোকার সময় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, দুটি টিকা নেওয়া থাকলে তবেই মক্কায় প্রবেশের অনুমতি পাওয়া যাবে। রবিবার সৌদি আরবের সরকারি সংবাদসংস্থা এসপিএ এই খবর জানিয়েছে।

সৌদি আরবের নাগরিকদের জন্যও বেশ কিছু নিয়ম শিথিল করা হয়েছে। আগেই খেলার মাঠগুলো খুলে দেওয়া হয়েছিল। এবার সেখানে দর্শক ঢোকার অনুমতি দেওয়া হলো। পাশাপাশি বলা হয়েছে, খোলা জায়গায় মাস্ক পরা আর বাধ্যতামূলক নয়। তবে ভিড় থাকলে মাস্ক পরতেই হবে।

নিয়ম খানিকটা শিথিল হলেও কাবার চারধারে যে ব্যারিকেড তৈরি করা হয়েছিল, এখনই তা তুলে ফেলা হবে না বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। করোনাকাল শুরু হওয়ার পর এই প্রথম দর্শনার্থীদের পুরোদস্তুর মসজিদে ঢোকার অনুমতি দিল কর্তৃপক্ষ। মনে করা হচ্ছে, এর ফলে আগামী কিছুদিন মানুষের ঢল নামবে এই পবিত্র মসজিদে। সূত্র: এসপিএ, রয়টার্স, আল-জাজিরা

About admin

Check Also

দাদা-নাতি মিলে ওরিও বিস্কুট দিয়ে বিশাল বড় কেক বানিয়ে এতিম শিশুদের খাওয়ানোর ভিডিও তুমুল ভাইরাল।

টে’লিভি’শনের থেকে এখন বেশি জনপ্রিয় বিনোদনের জায়গা হল সোশ্যাল মিডিয়া। সো’শ্যাল মি’ডিয়ার ভাইরাল ভিডিও এখন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.