আরও বেড়েছে চাল-তেল-মুরগির দাম

জীবনসংশ্লিষ্ট নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ে চরম অস্বস্তিতে আছে সাধারণ মানুষ। সয়াবিন, চাল, সবজি ও মুরগি বেশ কিছু দিন ধরে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষদের ভোগান্তি। এরমধ্যে আবারও বেড়েছে চাল, চিনি, মুরগি, সয়াবিন তেলসহ আরও কিছু নিত্যপণ্যের দামও।

বাজারের তথ্য বলছে, নতুন করে ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ৫ টাকার মতো। এছাড়া গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে নতুন করে চিকন চালের দাম কেজিতে বেড়েছে ৩ টাকা। খোলা সয়াবিন তেলের দাম প্রতি লিটারে বেড়েছে ৫ টাকার বেশি।

একইভাবে ১ লিটার ওজনের বোতলজাত সয়াবিনের দাম বেড়েছে ৫ টাকা। প্রতি লিটার খোলা পাম অয়েলের দাম বেড়েছে ৫ টাকা। চিনির দাম বেড়েছে কেজিতে ৩ টাকা। শুধু তা-ই নয়, রাজধানীর বাজারগুলোতে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, ব্যবসায়ীরা ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ১৯০ থেকে ১৯৫ টাকা। সরকারি বিপণন সংস্থা টিসিবির আজকের তথ্য বলছে, গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে ৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

এদিকে ব্যবসায়ীরা পাকিস্তানি কক বা সোনালি মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ৩৩০ থেকে ৩৫০ টাকা। আর লাল লেয়ার মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ২২০ থেকে ২৩০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, আদা, পেঁয়াজ ও রসুন ছাড়া প্রায় সব পণ্যের দাম বেড়েছে। তারা বলছেন, গত সপ্তাহে যে সরু চাল বিক্রি হয়েছে ৫৫ টাকা কেজি দরে, সেই চাল আজ বিক্রি হচ্ছে ৫৮ টাকা দরে। অর্থাৎ এই সপ্তাহে নতুন করে সরু চালের দাম কেজিতে বেড়েছে ৩ টাকা।

টিসিবির হিসাব বলছে, এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতিকেজি চালের দাম বেড়েছে প্রায় তিন শতাংশের মতো। আর খোলা সয়াবিন তেলের দাম এখন ১৪৫ টাকা লিটার। গত সপ্তাহে এই সয়াবিন বিক্রি হয়েছে ১৪০ টাকা লিটার। অর্থাৎ গত সপ্তাহের তুলনায় দাম বেড়েছে ৫ টাকার বেশি।

একইভাবে ১ লিটার ওজনের বোতলজাত সয়াবিনের দাম এখন ১৫৫ টাকা। গত সপ্তাহে ছিল ১৫০ টাকা। প্রতি লিটার খোলা পাম অয়েলের দাম এখন ১৩২ টাকা লিটার। আগের সপ্তাহে ছিল ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা লিটার। চিনির দাম এখন ৮২ টাকা কেজি। গত সপ্তাহে প্রতিকেজি চালের দাম ছিল ৭৯ টাকা। অর্থাৎ প্রতিকেজিতে দাম বেড়েছে ৩ টাকা।

জিনিসপত্রের দাম অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়ায় বেশ কিছু দিন ধরে হতাশা ব্যক্ত করছেন নিম্ন আয়ের মানুষেরা। মানিকনগর বাজারে ব্রয়লার মুরগি কিনতে আসা সালমান রব্বানি বলেন, বিনা কারণে ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে। এটা আমাদের মতো সীমিত আয়ের মানুষদের জন্য অস্বস্তিকর।

এদিকে সবজি ব্যবসায়ীরা আগের মতোই বেশি দামে বিক্রি করছেন গাজর ও টমেটো। মানভেদে এক কেজি গাজর ১০০ থেকে ১৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। টমেটোর কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা। এর বাইরে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে অন্যান্য সব সবজি।

শীতের আগাম সবজি শিম গত সপ্তাহের মতো কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১২০ টাকা। ঝিঙের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। ছোট ফুলকপি ও বাঁধাকপির পিস বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৫০ টাকা। মুলা বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকা কেজি। করলা বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা,

চিচিঙ্গা বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি, পটলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা, ঢেঁড়সের কেজি পাওয়া যাচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে, বরবটির কেজি পাওয়া যাচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা। কাঁচকলার হালি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, লাল শাকের আঁটি ১০ থেকে ২০ টাকা, মুলা শাকের আঁটি ১৫ থেকে ২০ টাকা, কলমি শাকের আঁটি ৫ থেকে ১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এর আগে পেঁয়াজের কেজি ৮০ টাকা হয়ে গিয়েছিল। সরকার শুল্ক প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ার পর ৬০ টাকায় নেমেছে। বাজারের তথ্য বলছে, গত সপ্তাহের তুলনায় পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৫ টাকা কমে এখন ৬০ থেকে ৬৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে আন্তর্জাতিক বাজারে পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ার প্রভাবে দেশেও চাল, ডাল, তেল, আটাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম অস্থির হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) বলছে, সর্বশেষ সেপ্টেম্বর মাসে গড় মূল্যস্ফীতি বেড়ে ৫ দশমিক ৫৯ শতাংশ দাঁড়িয়েছে, যা আগস্টে ছিল ৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ। গড় মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৫৯ শতাংশে দাঁড়ানোর অর্থ হলো গত বছরের সেপ্টেম্বরে যে পণ্যটি ১০০ টাকায় কেনা যেত, সেটি কিনতে এ বছরের সেপ্টেম্বরে লেগেছে ১০৫ টাকা ৫৯ পয়সা। বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) ওয়েবসাইটে মূল্যস্ফীতির হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করেছে বিবিএস। এতে দেখা যাচ্ছে, শহর ও গ্রাম দুই জায়গাতেই খাদ্য ও খাদ্যবহির্ভূত সব ধরনের নিত্যপণ্যের দাম বেড়েছে।

খাদ্য মূল্যস্ফীতির হার সেপ্টেম্বরে বেড়ে ৫ দশমিক ২১ শতাংশ হয়েছে, যা আগের মাসে ছিল ৫ দশমিক ১৬ শতাংশ। আর খাদ্যবহির্ভূত মূল্যস্ফীতি বেড়ে হয়েছে ৬ দশমিক ১৯ শতাংশ, যা আগের মাসে ছিল ৬ দশমিক ১৩ শতাংশ। বিবিএসের তথ্য বলছে, নিত্যপণ্যের চেয়ে খাদ্যবহির্ভূত পণ্যের পেছনে বেশি টাকা খরচ হচ্ছে মানুষের। স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পরিবহন, আসবাব ও বিনোদনের পেছনে খরচ বেড়েছে।

About admin

Check Also

এবারও ১৭ জোড়া বর-কনের বিয়ে দিলো ভোলা সমিতি

প্রতিটি মানুষের জীবনে বিয়ে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। জন্ম ও মৃত্যুর পরই মানুষের জীবনে বিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *