রুমিন ফারহানাকে আটকের পর, ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে চোখ ধাধানো জবাব দিলেন।

বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার পথে ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানাকে পথে গাড়ি আটক করে রেখে দেয় পুলিশ। দীর্ঘ সময় আটকে রাখার পর মিডিয়াতে বিষয়টি চলে আসে। এর পর মুখ খুললেন রুমিন ফারহানা উনার ফেসবুক পেইজে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে কঠিন জবাব দিলেন। পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

এত ভয় বিএনপিকে? এত ভয় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে? এই মুহূর্তে আছি ভৈরব সেতুতে। এই ছবির পুলিশরা আমার পথ আটকে দাঁড়িয়ে আছে ঘন্টা খানেক হলো। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপরে জুলুম বন্ধ করে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি

দেবার দাবিতে আজ জনসভার আয়োজন ছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। গুন্ডা সংগঠন ছাত্রলীগকে দিয়ে একই জায়গায় সমাবেশ আহ্বান করিয়ে ১৪৪ ধারা জারি করে আমাদের সমাবেশ পণ্ড করা হয়েছে। এখন এমনকি আমাদেরকে এলাকায়ও যেতে দিচ্ছে না।

বুঝতে পারছি দেশের মানুষের প্রাণের সংগঠন বিএনপি যখন রাস্তায় নেমেছে তখন জুলুমবাজ সরকারের শরীরে কাঁপুনি ধরে গেছে। এসব করে ওরা প্রমাণ করছে বিএনপিকে, বেগম জিয়াকে কতটা ভয় পায়।

পুলিশ বাহিনীকে বলতে চাই রাষ্ট্রের নাগরিকদের বেতনে আপনাদের পোষা হয় রাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনী হবার জন্য, আওয়ামী লীগের গুন্ডা হবার জন্য নয়। জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারে বাধা দেবার কোন আইনী ম্যান্ডেট আপনাদের নেই। সংযত হন, সব কিছুর হিসাব রাখা হচ্ছে। হিসাব মিটিয়ে নেয়া হবে, খুব বেশি দেরি আর নেই।

বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার পথে ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানাকে পথে গাড়ি আটক করে রেখে দেয় পুলিশ। দীর্ঘ সময় আটকে রাখার পর মিডিয়াতে বিষয়টি চলে আসে। এর পর মুখ খুললেন রুমিন ফারহানা উনার ফেসবুক পেইজে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে কঠিন জবাব দিলেন। পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

এত ভয় বিএনপিকে? এত ভয় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে? এই মুহূর্তে আছি ভৈরব সেতুতে। এই ছবির পুলিশরা আমার পথ আটকে দাঁড়িয়ে আছে ঘন্টা খানেক হলো। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপরে জুলুম বন্ধ করে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি

দেবার দাবিতে আজ জনসভার আয়োজন ছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। গুন্ডা সংগঠন ছাত্রলীগকে দিয়ে একই জায়গায় সমাবেশ আহ্বান করিয়ে ১৪৪ ধারা জারি করে আমাদের সমাবেশ পণ্ড করা হয়েছে। এখন এমনকি আমাদেরকে এলাকায়ও যেতে দিচ্ছে না।

বুঝতে পারছি দেশের মানুষের প্রাণের সংগঠন বিএনপি যখন রাস্তায় নেমেছে তখন জুলুমবাজ সরকারের শরীরে কাঁপুনি ধরে গেছে। এসব করে ওরা প্রমাণ করছে বিএনপিকে, বেগম জিয়াকে কতটা ভয় পায়।

পুলিশ বাহিনীকে বলতে চাই রাষ্ট্রের নাগরিকদের বেতনে আপনাদের পোষা হয় রাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনী হবার জন্য, আওয়ামী লীগের গুন্ডা হবার জন্য নয়। জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারে বাধা দেবার কোন আইনী ম্যান্ডেট আপনাদের নেই। সংযত হন, সব কিছুর হিসাব রাখা হচ্ছে। হিসাব মিটিয়ে নেয়া হবে, খুব বেশি দেরি আর নেই।

About admin

Check Also

সাবেক শিবির নেতা নৌকার চেয়ারম্যান হয়ে আ.লীগ নেতাকে মনের ইচ্ছামত পে’টালেন

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হওয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন ইমাদ এক আওয়ামী লীগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *