সৌদি প্রবাসীর হারানো সাড়ে ৭ লাখ টাকা-লাগেজ বিমানবন্দরে উদ্ধার

প্রবাস জীবন আকর্ষণীয় হলেও পেছনে থাকে অন্যকিছু। কেউ হয়তো কর্মজীবনের কিছু সময়ের জন্য প্রবাসী হন, আবার কেউ সারা জীবন কাটাতে। এ জীবন কারো জন্য সুখের, কারো জন্য দুঃখের। দেশ থেকে মানুষ বিদেশ যায় দেশের মানুষগুলোকে ভালো ও আনন্দে রাখার জন্য। দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখা ও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ানোর ক্ষেত্রেও প্রবাসীদের ভূমিকা কম নয়।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ বেল্ট থেকে এক সৌদি প্রবাসীর টাকাসহ লাগেজ হারানোর ঘটনায় লাগেজ ও সাড়ে ৭ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)

রাকিব নামের ওই প্রবাসীর বাড়ি নড়াইলের কালীয়া থানায়। ১৩ বছর ধরে তিনি সৌদি আরবে থাকতেন। ভিসা না থাকায় তাকে দেশে পাঠিয়েছে সে দেশের সরকার।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় রাকিব দেশে আসেন এবং বিমানবন্দরে নেমে তিনি দেখতে পান তার সঙ্গে থাকা লাগেজটি নেই। সেটি হারানোর পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে বিমানবন্দরে দায়িত্বরত এপিবিএন অফিসে যোগাযোগ করেন। এরপর এপিবিএন তার লাগেজটি সিসিটিভি ফুটেজ দেখে খুঁজে বের করে উদ্ধার করে।

লাগেজ হারিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে রাকিব বলেন, বিমানবন্দরের বাইরে থেকে চুরি হলে ভিন্ন কথা ছিল। কিন্তু লাগেজটি বিমানবন্দরের ভেতর থেকে হারিয়ে যায়। চার বছর পর দেশে আসছি। লাগেজের ভেতর ব্যাংকের সাতটি চেক ছিল, তাতে বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে সাত লাখ টাকা হয়। টাকা ছাড়াও লাগেজে জামাকাপড় ছিল।

তিনি আরও বলেন, যিনি আমার লাগেজটি নিয়ে যান তিনি একটি হাত ট্রলি রেখে গেছিলেন। ভুলে নাকি ইচ্ছাকৃতভাবে নিয়ে গেছিলেন জানি না।শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে লাগেজ উদ্ধারের বিষয়ে জানতে চাইলে এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মোহাম্মদ জিয়াউল হক জিয়া লাগেজ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রবাস জীবন আকর্ষণীয় হলেও পেছনে থাকে অন্যকিছু। কেউ হয়তো কর্মজীবনের কিছু সময়ের জন্য প্রবাসী হন, আবার কেউ সারা জীবন কাটাতে। এ জীবন কারো জন্য সুখের, কারো জন্য দুঃখের। দেশ থেকে মানুষ বিদেশ যায় দেশের মানুষগুলোকে ভালো ও আনন্দে রাখার জন্য। দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখা ও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ানোর ক্ষেত্রেও প্রবাসীদের ভূমিকা কম নয়।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ বেল্ট থেকে এক সৌদি প্রবাসীর টাকাসহ লাগেজ হারানোর ঘটনায় লাগেজ ও সাড়ে ৭ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)

রাকিব নামের ওই প্রবাসীর বাড়ি নড়াইলের কালীয়া থানায়। ১৩ বছর ধরে তিনি সৌদি আরবে থাকতেন। ভিসা না থাকায় তাকে দেশে পাঠিয়েছে সে দেশের সরকার।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় রাকিব দেশে আসেন এবং বিমানবন্দরে নেমে তিনি দেখতে পান তার সঙ্গে থাকা লাগেজটি নেই। সেটি হারানোর পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে বিমানবন্দরে দায়িত্বরত এপিবিএন অফিসে যোগাযোগ করেন। এরপর এপিবিএন তার লাগেজটি সিসিটিভি ফুটেজ দেখে খুঁজে বের করে উদ্ধার করে।

লাগেজ হারিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে রাকিব বলেন, বিমানবন্দরের বাইরে থেকে চুরি হলে ভিন্ন কথা ছিল। কিন্তু লাগেজটি বিমানবন্দরের ভেতর থেকে হারিয়ে যায়। চার বছর পর দেশে আসছি। লাগেজের ভেতর ব্যাংকের সাতটি চেক ছিল, তাতে বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে সাত লাখ টাকা হয়। টাকা ছাড়াও লাগেজে জামাকাপড় ছিল।

তিনি আরও বলেন, যিনি আমার লাগেজটি নিয়ে যান তিনি একটি হাত ট্রলি রেখে গেছিলেন। ভুলে নাকি ইচ্ছাকৃতভাবে নিয়ে গেছিলেন জানি না।শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে লাগেজ উদ্ধারের বিষয়ে জানতে চাইলে এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মোহাম্মদ জিয়াউল হক জিয়া লাগেজ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

About admin

Check Also

গণকমিশনের অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ১১৬ জনকে ধর্ম ব্যবসায়ী আখ্যা দিয়ে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির …

Leave a Reply

Your email address will not be published.