এটা সুপার এডিটেড, আমি মামলা করব : জায়েদ খান

এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে টালমাটাল সিনেমাপাড়া। নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ দাবি করেছেন জায়েদ খান চক্রান্ত করেছেন। নানা ষড়যন্ত্র করে ভোটে জিতেছেন।

আজ রবিবার ৩০ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে জায়েদ খানের সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের কোনো এক ব্যক্তির আলাপের স্ক্রিনশট ফাঁ’স করেন নিপুণ। সেখানে দেখা যায়, কাঞ্চন-নিপুণ-রিয়াজদের হা’রানোর জন্য অ’পকৌশল অবলম্বন করছেন জায়েদ খান।

এ বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন জায়েদ খান। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বললেন, ‘স্ক্রিনশটের ব্যাপারটি নির্বাচনের আগের দিনই আমা’র কাছে এসেছে। একজন পাঠিয়েছে। আধুনিক যুগে এগুলো সবাই জানেন।

স্ক্রিনশট হলে, যার কাছে মেসেজ পাঠিয়েছি, তার ছবিটা কোথায়? দুইজনের সঙ্গে আলাপের স্ক্রিনশট দেখানো হয়েছে, তাহলে সেই মানুষটা কে? আম’রা এতো বোকা না। স্ক্রিনশট দিয়ে তার নামটা সরিয়ে দেবেন, তাহলে কী’ভাবে হবে! ওই লোকটাকে সামনে আনেন। যাকে আমি এসব মেসেজ দিয়েছি, তাকে দেখতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণ বানোয়াট। আমা’র একটা ছবি দিয়ে প্রোফাইল খুলে এই স্ক্রিনশটগুলো রেডি করে তারপর ছেড়ে দিয়েছে। আমি ওইদিনই বিষয়টি নিয়ে সাইবার ক্রা’ইম ডিপার্টমেন্টে কথা বলেছি। অলরেডি আমি স্ক্রিনশট পাঠিয়ে দিয়েছি। তারা এটা নিয়ে কাজ করছেন। এটা যে করেছে, তাকে আইনের আওতায় আনার জন্য আমি মা’মলা পর্যন্ত করব।’

এ সময় জায়েদ খান আরও বলেন, ‘মেসেজের পাশে ওই ব্যক্তির ছবিও থাকার কথা, উপরে নাম থাকার কথা। কিছুই নেই। এটা কী’ভাবে সম্ভব। এটা সুপার এডিটেড। আমি বলেছিলাম,

আমাকে মা’র্ডার কেসে আ’ট’কানোর চেষ্টা করেছে, পপিকে দিয়ে আ’ট’কানোর চেষ্টা করেছে, এখন এগুলো শুরু করেছে। ঘটনা হলো, জায়েদ খান জিততেই পারবে না। কিছু মানুষের এমন মানসিকতা কাজ করছে।’

এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে টালমাটাল সিনেমাপাড়া। নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ দাবি করেছেন জায়েদ খান চক্রান্ত করেছেন। নানা ষড়যন্ত্র করে ভোটে জিতেছেন।

আজ রবিবার ৩০ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে জায়েদ খানের সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের কোনো এক ব্যক্তির আলাপের স্ক্রিনশট ফাঁ’স করেন নিপুণ। সেখানে দেখা যায়, কাঞ্চন-নিপুণ-রিয়াজদের হা’রানোর জন্য অ’পকৌশল অবলম্বন করছেন জায়েদ খান।

এ বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন জায়েদ খান। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বললেন, ‘স্ক্রিনশটের ব্যাপারটি নির্বাচনের আগের দিনই আমা’র কাছে এসেছে। একজন পাঠিয়েছে। আধুনিক যুগে এগুলো সবাই জানেন।

স্ক্রিনশট হলে, যার কাছে মেসেজ পাঠিয়েছি, তার ছবিটা কোথায়? দুইজনের সঙ্গে আলাপের স্ক্রিনশট দেখানো হয়েছে, তাহলে সেই মানুষটা কে? আম’রা এতো বোকা না। স্ক্রিনশট দিয়ে তার নামটা সরিয়ে দেবেন, তাহলে কী’ভাবে হবে! ওই লোকটাকে সামনে আনেন। যাকে আমি এসব মেসেজ দিয়েছি, তাকে দেখতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণ বানোয়াট। আমা’র একটা ছবি দিয়ে প্রোফাইল খুলে এই স্ক্রিনশটগুলো রেডি করে তারপর ছেড়ে দিয়েছে। আমি ওইদিনই বিষয়টি নিয়ে সাইবার ক্রা’ইম ডিপার্টমেন্টে কথা বলেছি। অলরেডি আমি স্ক্রিনশট পাঠিয়ে দিয়েছি। তারা এটা নিয়ে কাজ করছেন। এটা যে করেছে, তাকে আইনের আওতায় আনার জন্য আমি মা’মলা পর্যন্ত করব।’

এ সময় জায়েদ খান আরও বলেন, ‘মেসেজের পাশে ওই ব্যক্তির ছবিও থাকার কথা, উপরে নাম থাকার কথা। কিছুই নেই। এটা কী’ভাবে সম্ভব। এটা সুপার এডিটেড। আমি বলেছিলাম,

আমাকে মা’র্ডার কেসে আ’ট’কানোর চেষ্টা করেছে, পপিকে দিয়ে আ’ট’কানোর চেষ্টা করেছে, এখন এগুলো শুরু করেছে। ঘটনা হলো, জায়েদ খান জিততেই পারবে না। কিছু মানুষের এমন মানসিকতা কাজ করছে।’

About admin

Check Also

স্বামীকে ২৪ ঘন্টায় ২৭ বার ছেড়ে দেন মাহিয়া মাহি

যারা চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে ফেসবুকে অনুসরণ করেন তারা জানেন প্রেমময় স্ট্যাটাসে জুড়ি নেই তার। প্রায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.