৯ মাসে হাফেজ হলো সাত বছরের জিবরিল বিন নেছারী

মুহাম্মদ জিবরিল বিন নেছারীর বয়স মা’ত্র সা’ত বছর। এই বয়সেই সে মাত্র নয় মাসে পবিত্র কুরআনে কারিম হিফজ স’ম্পন্ন করেছে। জিব’রিল বিশিষ্ট কারী ও হাফেজ নেছার আহমাদ আন-নাছি’রীর তৃতীয় ছেলে।

হাফে’জ নেছারী তার ছেলের এই কৃতি’ত্বের কথা জানি’য়ে বলেন, আল্লাহ তায়ালার মেহেরবানিতে আমার তৃতীয় ছেলে মু’হাম্মদ জিব’রিল বিন নেছারী সাত বছর বয়সে মাত্র নয় মাসে সমস্ত কুরআন মুখ’স্ত করে হাফে’জ হয়েছে।

তার আগে আলহামদুলিল্লাহ আমা’র বড় ছে’লে এবং মেজো ছেলে কুরআনের হাফেজ হয়েছে। বাবা হি’সেবে এর চে’য়ে বড় পাওয়া আর কিছু নেই। জিবরিলের বাবার জানান, তার ছে’লের শেষ সব’ক শুনেছেন এবং তাকে পাগড়ি পরিয়ে দিয়েছেন হাফে’জ কারী মাওলা’না বজলুল হক,

হাফেজ কারী মাওলানা মুফতি মিজা’নুর রহমান, হাফে’জ কারী মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, হাফে’জ কারী মাওলা’নাআবু ইউসুফ, হাফেজ কারী মাওলা’না এ কে এম ফি’রোজ, হাফেজ কারী মাওলানা এহসানুল হক জিলা’নী,

হাফেজ কারী মাও’লানা মহিউদ্দীন কাসেমসহ দেশবরেণ্য আলেম-উলা’মারা। দোয়ার অনু’ষ্ঠানে উপস্থিত জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের চার’জন ইমাম ও দেশব’রেণ্য আলেম-উলামার সামনে যখন মুহা’ম্মদ জিবরি’লকে প্রশ্ন করা হয়, জিব’রিল তুমি ভবিষ্যতে কী হ’তে চাও?

উত্তরে সে বলে, আমি আল্লাহওয়া’লা হতে চাই। :ছোট্ট জিবরি_লের মুখ থেকে এ কথা শুনে সবাই অবা’ক হন এবং তার জন্য দো’য়া করেন। হাফেজ নেছারী বলেন, আমি ব্যক্তিগত_ভাবে ছো’ট ছোট শিশুদে’র বাবা মায়ের স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যাচ্ছি অনেক ব’ছর ধরে।

নিজে’র সন্তান_দের প্রতি তেমন খেয়াল করার সুযোগ হয়ে ওঠেনি। অনে’কগুলো মাদ্রাসার দায়িত্ব পালন করার কারণে হাজারো ছাত্রে’র ভিড়ে নিজের সন্তান_দের প্রতি তেমন মনোযোগ দিতে পারি’নি।কিন্তু অন্যদের সন্তান_দেরকে হাফেজ বা’নানোর পাশাপাশি বিভিন্ন রাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত কুরআন প্রতিযো’গিতায় নিয়ে গিয়ে’ছি।

তারা মক্কা মদিনায় কুরআন তেলাওয়াত করে বিশ্ব_বিজয়ীও হয়েছে আলহাম’দুলিল্লাহ! আমি মনে করি অন্যন্য বাবাদের স্বপ্ন পূরণের কার’ণে আল্লাহ তায়া:লা আমার স্বপ্ন পূরণ করে তিন ছেলেকে কুরআনের হাফে’জ বানিয়ে’ছেন।

হাফেজ কারী মাওলানা মুফতি মিজা’নুর রহমান, হাফে’জ কারী মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, হাফে’জ কারী মাওলা’নাআবু ইউসুফ, হাফেজ কারী মাওলা’না এ কে এম ফি’রোজ, হাফেজ কারী মাওলানা এহসানুল হক জিলা’নী,

হাফেজ কারী মাও’লানা মহিউদ্দীন কাসেমসহ দেশবরেণ্য আলেম-উলা’মারা। দোয়ার অনু’ষ্ঠানে উপস্থিত জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের চার’জন ইমাম ও দেশব’রেণ্য আলেম-উলামার সামনে যখন মুহা’ম্মদ জিবরি’লকে প্রশ্ন করা হয়, জিব’রিল তুমি ভবিষ্যতে কী হ’তে চাও?

উত্তরে সে বলে, আমি আল্লাহওয়া’লা হতে চাই। :ছোট্ট জিবরি_লের মুখ থেকে এ কথা শুনে সবাই অবা’ক হন এবং তার জন্য দো’য়া করেন। হাফেজ নেছারী বলেন, আমি ব্যক্তিগত_ভাবে ছো’ট ছোট শিশুদে’র বাবা মায়ের স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যাচ্ছি অনেক ব’ছর ধরে।

নিজে’র সন্তান_দের প্রতি তেমন খেয়াল করার সুযোগ হয়ে ওঠেনি। অনে’কগুলো মাদ্রাসার দায়িত্ব পালন করার কারণে হাজারো ছাত্রে’র ভিড়ে নিজের সন্তান_দের প্রতি তেমন মনোযোগ দিতে পারি’নি।কিন্তু অন্যদের সন্তান_দেরকে হাফেজ বা’নানোর পাশাপাশি বিভিন্ন রাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত কুরআন প্রতিযো’গিতায় নিয়ে গিয়ে’ছি।

তারা মক্কা মদিনায় কুরআন তেলাওয়াত করে বিশ্ব_বিজয়ীও হয়েছে আলহাম’দুলিল্লাহ! আমি মনে করি অন্যন্য বাবাদের স্বপ্ন পূরণের কার’ণে আল্লাহ তায়া:লা আমার স্বপ্ন পূরণ করে তিন ছেলেকে কুরআনের হাফে’জ বানিয়ে’ছেন।

About admin

Check Also

পুর্ব শত্রুতার জেরে পুুকুরে বিষ দিয়ে ২ লাখ টাকার মাছ হত্যা

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হরিশংকরপুর ইউনিয়নের পানমী গ্রামে এক মাছ চাষীর পুকুরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.