‘মা, তো’মরা টা’কা দিতে পারলে না, মনে হয় আ’মাকে মে’রে ফেলবে’

নরসিংদীর মনোহরদীতে উদ্ধার হওয়া যুব’কের মরদে’হের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি সিরাজগঞ্জ সদরের রায়’পুর রেলওয়ে কলো’নি এলাকার মুসলিম উদ্দিনের ছেলে মিঠু হোসে’ন (২৪)। তিনি অনলা’ইনে বিভিন্ন শাড়ির ব্যবসা করতেন।

এ ঘটনায় মিঠুর ব’ড় বোন মিনু আ’ক্তার বাদী হয়ে মনোহরদী থানায় অজ্ঞাত কয়েক_জনকে আসা’মি করে হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ হত্যা’কারীদের শনাক্তে নিরলস’ভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

মামলার বাদী মিনু আ’ক্তার জানান, গত বুধবার ভো’রে শাড়ি কেনার জন্য নরসিংদীর উদ্দেশে বাসা থে’কে বের হন মিঠু। সন্ধ্যা’য় তাঁর মায়ের মুঠোফোনে কল করে নরসিংদী পৌঁছা’নোর কথা নিশ্চি’ত করেন।

ওইদিন রাত ৮টার দিকে আবারো ফো’ন দিয়ে তিনি জা’নান, কয়েকজন লোক তাকে অপহরণ করেছে এবং এক লাখ টা’কা মুক্তি’পণ দাবি করছে। অপহরণকারীরা মিঠুকে মার_ধর করে তাদের দেওয়া মোবা’ইল ব্যাংকিং নাম্বারে দ্রুত টাকা পাঠাতে

বলা হয়। এ ঘটনায় ওই_দিন রাতেই মিঠুর পরি’বার থেকে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় সাধারণ ডায়ে’রি করা হয়। একই রাত ১১টা’র দিকে মিঠু ফোন করে তাঁর মাকে জানায়, তো’মরা তো টাকা দিতে পা’রলে না।

অপহরণকারীরা মনে হয় আমাকে মেরে ফে’লবে। কোনো ভুল ক’রে থাকলে ক্ষমা করে দিও। এ সময় অজ্ঞাত ব্যক্তি তা’র হাত থেকে মোবা’ইল নিয়ে মিঠুর বোনকে বলে যেহেতু টাকা দিতে পার’সনি তাই তোর ভাই’কে বাঁচিয়ে রাখতে পারছি না।

আগামীকাল তোর ভাই’য়ের লাশ খোঁ’জে নিস। একথা বলে মিঠুর মোবাইল বন্ধ করে দেওয়া হয়। পর দিন বৃহস্পতি_বার সকা’লে মিঠুর খোঁজে তাঁর মা, বোন এবং নানি নরসিংদীর উদ্দে’শে রওনা হয়।

সকা’ল ১০টার দিকে অজ্ঞাত ব্যক্তি মিঠুর মোবাইল থেকে মিনু’কে ফোন দিয়ে পুন’রায় মুক্তিপণ দাবি করে। এসময় তিনি মিঠুর সঙ্গে কথা বল’তে চাইলে অপহরণ’কারী বলেন, আগে টাকা দেন তারপর ভাই’য়ের সঙ্গে কথা বলেন।

একথা বলে আবারো মোবাইল ব’ন্ধ করে দেওয়া হয়। বৃহস্পতি’বার রাত ৮টার দিকে সিরাজগঞ্জের পরি’চিত এক সাংবা’দিকের মাধ্যমে জানতে পারেন মনোহরদী উপজেলায় অ’জ্ঞাত যুব’কের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ খবর পেয়ে মিঠুর মা-বোন দ্রুত মনো’হরদী থানায় উপ’স্থিত হন। পরে পুলিশের মোবাইল ফোনে ছ’বি দেখে মিঠুর লা’শ শনাক্ত করেন তারা। এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা’র দিকে মনো’হরদী উপজেলার একদুয়ারিয়া

ইউনিয়নের হুগোলিয়াপাড়া এলা’কার রূপচান মিয়া’র খড়ের পালার পাশে অজ্ঞাত ওই যুবকের মরদেহ দে’খতে পেয়ে পুলি’শকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মর’দেহ উদ্ধার করে সুর’তহাল শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপা’তাল মর্গে পাঠি’য়েছে। নিহতের গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আ’ঘাতের চিহ্ন পা’ওয়া গেছে।

মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্ম’কর্তা (ওসি) মোহাম্ম’দ আনিচুর রহমান বলেন, পুলিশের একাধিক টিম হত্যাকা’রীদের শনা’ক্তের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা ক’রা হচ্ছে, হত্যা’কারীরা অন্য কোনো স্থানে মিঠুকে হত্যা করে লাশ এখা’নে ফেলে গেছে। বি’ভিন্ন বিষয় মাথায় রেখে পুলিশ কাজ করছে বলে’ও জানান তিনি।
.

About admin

Check Also

পুর্ব শত্রুতার জেরে পুুকুরে বিষ দিয়ে ২ লাখ টাকার মাছ হত্যা

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হরিশংকরপুর ইউনিয়নের পানমী গ্রামে এক মাছ চাষীর পুকুরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.