জ্বালায় রাতে ঘুমাতে পারছি না: পড়শী

ছোটবেলা থেকেই প্রাণীদের প্রতি অন্যরকম ভালো’বাসা সংগীতশিল্পী পড়শীর। তার কুকুর পোষার গল্প ভক্তদের অনে’রেকই জানা। বিভিন্ন সময়ে পোষ্য কুকুর’সহ খবরের শিরোনা’মও হয়েছিলেন জ’নপ্রিয় এই গায়িকা। তবে পড়শী এখন আছেন নিজের প্রিয় বিড়াল লুচির যন্ত্র’ণায়। বিড়ালটির জ্বালায়

রাতে ঘুমাতে পারছেন না তিনি। ফলে দিনের বেলা’তেই ঘুমাতে হচ্ছে তাকে পড়শী বলেন, ‘গত ১ জানুয়ারি রাত ৩টার দিকে চিৎ:কার শুনে মৃতপ্রায় অবস্থায় এই বিড়াল_টিকে আমার বাসার (উত্তরা) পা’শের লেক থেকে উদ্ধার করি। তখন বিড়ালটির বয়স ছিল ১০-১২ দিন। এর’পর নানান চিকিৎসা আর

সেবা দিয়ে বিড়াল’টিকে বড় করতে থাকি। এখন আ’মার জীবনের বড় একটা অংশ হয়ে গেছে সে। ওকে ডাকলে, কোনো কি’ছু বললে বুঝতে পারে। সে মতো কাজ করে।’ এ গায়ি’কার ভাষ্য, ‘রাতে আমা’কে ছাড়া বিড়ালটি ঘুমায় না। দুই পা দিয়ে আমার মুখটা আঁকড়ে ধরে সে ঘু’মায়। এর ফলে আমার মুখে

আঁচড় লাগে। ও একটু ঘুমা’লে আমি সরিয়ে রাখি। কিন্তু কিছু’ক্ষণ পর উঠে আবারও আমাকে জড়িয়ে ধরে।এভাবে করতে করতে সারা রা’ত চলে যায়। বিড়ালের জ্বালায় রাতে একটুও ঘুমাতে পারি না। এছা’ড়া আমার চারটি কুকুর আছে সেগুলোরও যত্ন নিতে হয়। ফলে রাতে ওদে’র পাহারা দেই আর

সারাদিন ঘুমাই।’ পড়শী আর’ও জানান, গত মাসে ইমরা’নের সঙ্গে প্রকাশিত নিজের নতুন গান ‘এক দেখা’র শুটিংয়েও লুচিকে নি’য়ে গিয়েছিলেন। কিছুদিন আগে কক্সবাজার বেড়াতে যান পড়শী। সেখা’নেও নিয়ে যান বিড়ালটিকে। পড়শীর সঙ্গে সেখানে টানা চারদিন ঘু’ড়ে বেড়ায় বিড়ালটি।নিজের প্রিয় পোষ্যদের সময় দিতে, তাদের নিয়ে একস’ঙ্গে ঘুরে বেড়াতে দারুণ পছন্দ এই গায়িকার। বিড়ালকে ভালোবা:সতে গিয়ে’ই এখন পড়েছেন মধুর যন্ত্রণায়।

ছোটবেলা থেকেই প্রাণীদের প্রতি অন্যরকম ভালো’বাসা সংগীতশিল্পী পড়শীর। তার কুকুর পোষার গল্প ভক্তদের অনে’রেকই জানা। বিভিন্ন সময়ে পোষ্য কুকুর’সহ খবরের শিরোনা’মও হয়েছিলেন জ’নপ্রিয় এই গায়িকা। তবে পড়শী এখন আছেন নিজের প্রিয় বিড়াল লুচির যন্ত্র’ণায়। বিড়ালটির জ্বালায়

রাতে ঘুমাতে পারছেন না তিনি। ফলে দিনের বেলা’তেই ঘুমাতে হচ্ছে তাকে পড়শী বলেন, ‘গত ১ জানুয়ারি রাত ৩টার দিকে চিৎ:কার শুনে মৃতপ্রায় অবস্থায় এই বিড়াল_টিকে আমার বাসার (উত্তরা) পা’শের লেক থেকে উদ্ধার করি। তখন বিড়ালটির বয়স ছিল ১০-১২ দিন। এর’পর নানান চিকিৎসা আর

সেবা দিয়ে বিড়াল’টিকে বড় করতে থাকি। এখন আ’মার জীবনের বড় একটা অংশ হয়ে গেছে সে। ওকে ডাকলে, কোনো কি’ছু বললে বুঝতে পারে। সে মতো কাজ করে।’ এ গায়ি’কার ভাষ্য, ‘রাতে আমা’কে ছাড়া বিড়ালটি ঘুমায় না। দুই পা দিয়ে আমার মুখটা আঁকড়ে ধরে সে ঘু’মায়। এর ফলে আমার মুখে

আঁচড় লাগে। ও একটু ঘুমা’লে আমি সরিয়ে রাখি। কিন্তু কিছু’ক্ষণ পর উঠে আবারও আমাকে জড়িয়ে ধরে।এভাবে করতে করতে সারা রা’ত চলে যায়। বিড়ালের জ্বালায় রাতে একটুও ঘুমাতে পারি না। এছা’ড়া আমার চারটি কুকুর আছে সেগুলোরও যত্ন নিতে হয়। ফলে রাতে ওদে’র পাহারা দেই আর

সারাদিন ঘুমাই।’ পড়শী আর’ও জানান, গত মাসে ইমরা’নের সঙ্গে প্রকাশিত নিজের নতুন গান ‘এক দেখা’র শুটিংয়েও লুচিকে নি’য়ে গিয়েছিলেন। কিছুদিন আগে কক্সবাজার বেড়াতে যান পড়শী। সেখা’নেও নিয়ে যান বিড়ালটিকে। পড়শীর সঙ্গে সেখানে টানা চারদিন ঘু’ড়ে বেড়ায় বিড়ালটি।নিজের প্রিয় পোষ্যদের সময় দিতে, তাদের নিয়ে একস’ঙ্গে ঘুরে বেড়াতে দারুণ পছন্দ এই গায়িকার। বিড়ালকে ভালোবা:সতে গিয়ে’ই এখন পড়েছেন মধুর যন্ত্রণায়।

About admin

Check Also

পাঁচ বোনের সঙ্গে হাজির চঞ্চল চৌধুরী

ভাইয়ের কপালে দিয়ে ফোঁটা, যম দুয়ারে পড়ল কাঁটা। হিন্দু ধর্মে ভাইয়ের সুস্থতা কামনায় প্রত্যেক বোনই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.