ওরা ভালো বল করেছে, আমরা খুব বাজে ব্যাটিং করেছিঃ মুমিনুল

২৭৪ রান তাড়া করতে নেমে পঞ্চম দিনে মাত্র ৫৩ রানে গুটিয়ে গেছে টাইগারদের ইনিংস। ২২০ রানের বড় জয়ে সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা। ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুমিনুল হক বলেন, ‘আমি টস জিতে বোলিং নিয়েছি কারণ তিন পেসার আছে, উইকেট থেকে সুবিধা নেওয়ার জন্য। আরও একজন পেসার কিংবা আরেকজন স্পিনার নেওয়ার কথা বলতে পারেন।

আরেকটা অপশন ৬টা ব্যাটার নিয়ে খেলা। বাংলাদেশ এখনো ওই পর্যায়ে যায়নি যে ৬ ব্যাটার আর পাঁচ বোলার নিয়ে বিদেশে খেলা যাবে। আপনাকে রিসোর্সটা বুঝতে হবে। দক্ষিণ আফ্রিকায় হয়তো চার নাম্বার কিংবা পাঁচ নাম্বার দিনে বল ঘুরে। ‘

ডারবানের এমন উইকেটে আরও একজন স্পিনার খেলানো যেত কিনা- এমন প্রশ্নে মুমিনুলের জবাব, ‘উইকেট দেখে অবশ্যই আমি সারপ্রাইজ। তবে আমার কাছে মনে হয় না খুব বেশি বল ঘুরেছে। আমরা যারা আউট হয়েছি বেশিরভাগই সোজা বলে।

দ্বিতীয় ইনিংসে দেখেন জয় তারপর মুশফিক ভাইকে দেখেন, সোজা বলে আউট হয়েছে। সত্যি কথা বলতে, আমরা খুব বাজে ব্যাটিং করেছি, আর বোলাররা ভালো বল করেছে। ‘

২৭৪ রান তাড়া করতে নেমে পঞ্চম দিনে মাত্র ৫৩ রানে গুটিয়ে গেছে টাইগারদের ইনিংস। ২২০ রানের বড় জয়ে সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা। ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুমিনুল হক বলেন, ‘আমি টস জিতে বোলিং নিয়েছি কারণ তিন পেসার আছে, উইকেট থেকে সুবিধা নেওয়ার জন্য। আরও একজন পেসার কিংবা আরেকজন স্পিনার নেওয়ার কথা বলতে পারেন।

আরেকটা অপশন ৬টা ব্যাটার নিয়ে খেলা। বাংলাদেশ এখনো ওই পর্যায়ে যায়নি যে ৬ ব্যাটার আর পাঁচ বোলার নিয়ে বিদেশে খেলা যাবে। আপনাকে রিসোর্সটা বুঝতে হবে। দক্ষিণ আফ্রিকায় হয়তো চার নাম্বার কিংবা পাঁচ নাম্বার দিনে বল ঘুরে। ‘

ডারবানের এমন উইকেটে আরও একজন স্পিনার খেলানো যেত কিনা- এমন প্রশ্নে মুমিনুলের জবাব, ‘উইকেট দেখে অবশ্যই আমি সারপ্রাইজ। তবে আমার কাছে মনে হয় না খুব বেশি বল ঘুরেছে। আমরা যারা আউট হয়েছি বেশিরভাগই সোজা বলে।

দ্বিতীয় ইনিংসে দেখেন জয় তারপর মুশফিক ভাইকে দেখেন, সোজা বলে আউট হয়েছে। সত্যি কথা বলতে, আমরা খুব বাজে ব্যাটিং করেছি, আর বোলাররা ভালো বল করেছে। ‘

২৭৪ রান তাড়া করতে নেমে পঞ্চম দিনে মাত্র ৫৩ রানে গুটিয়ে গেছে টাইগারদের ইনিংস। ২২০ রানের বড় জয়ে সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা। ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুমিনুল হক বলেন, ‘আমি টস জিতে বোলিং নিয়েছি কারণ তিন পেসার আছে, উইকেট থেকে সুবিধা নেওয়ার জন্য। আরও একজন পেসার কিংবা আরেকজন স্পিনার নেওয়ার কথা বলতে পারেন।

আরেকটা অপশন ৬টা ব্যাটার নিয়ে খেলা। বাংলাদেশ এখনো ওই পর্যায়ে যায়নি যে ৬ ব্যাটার আর পাঁচ বোলার নিয়ে বিদেশে খেলা যাবে। আপনাকে রিসোর্সটা বুঝতে হবে। দক্ষিণ আফ্রিকায় হয়তো চার নাম্বার কিংবা পাঁচ নাম্বার দিনে বল ঘুরে। ‘

ডারবানের এমন উইকেটে আরও একজন স্পিনার খেলানো যেত কিনা- এমন প্রশ্নে মুমিনুলের জবাব, ‘উইকেট দেখে অবশ্যই আমি সারপ্রাইজ। তবে আমার কাছে মনে হয় না খুব বেশি বল ঘুরেছে। আমরা যারা আউট হয়েছি বেশিরভাগই সোজা বলে।

দ্বিতীয় ইনিংসে দেখেন জয় তারপর মুশফিক ভাইকে দেখেন, সোজা বলে আউট হয়েছে। সত্যি কথা বলতে, আমরা খুব বাজে ব্যাটিং করেছি, আর বোলাররা ভালো বল করেছে। ‘

About admin

Check Also

রাজকন্যার বাবা হলেন তাসকিন

পুত্র সন্তানের পর এবার কন্যা সন্তানের বাবা হয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের পেসার তাসকিন আহমেদ। দ্বিতীয়বার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.