খোলা চিঠিতে ক্রিকেটার নাসিরকে যা বললেন তার সাবেক প্রেমিকা

খোলা চিঠিতে ক্রিকেটার নাসিরকে যা বললেন তার সাবেক প্রেমিকা
ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সাবেক প্রেমিকা দাবি করে মডেল ও অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমায়রা প্রায়ই আলোচনায় আসেন। কখনো ফেসবুক লাইভে কখনো বা স্ট্যাটাসে তিনি নাসিরকে নিয়ে নানা মন্তব্য করেন। সেসব নিয়ে চলে হইচই। তামিমাকে নাসিরের বিয়ের পর তিনি বেশ কিছু মন্তব্য করেছিলেন যা বেশ আলোচিত ছিলো।

আজ বুধবার (৩ নভেম্বর) সুবাহ চিঠির আকারে লিখেছেন, ‘Dear X, You know what? সেদিন যদি তুমি একটা বার আমার কাছে চলে এসে সবকিছু ঠিক করে নিতে, তাহলে হয়তো আজ তামিমার মতো ২ বাচ্ছার মার কাছে তোমার ধরা খেতে হতো না! আর ধরা খেয়ে এইভাবে কোর্টে কোর্টে টাকা খরচ করে জামিন নিতে হতো না।’

নাসির তামিমার কাছে ভালো নেই দাবি করে সুবাহ আরও লেখেন, ‘তুমি মুখে যতই হাসো কিন্তু তোমাকে দেখলেই আমি বুঝতে পারি তুমি ভালো নেই। তোমাকে এভাবে অপমানিত হতে দেখে আমার খুব খারাপ লাগছে।

এখনো তোমার জন্য তোমার নাম জড়িয়ে আমাকে অনেকেই কমেন্ট করে তোমার নাম লিখে অথচ তুমি এখন অন্য কাউকে নিয়ে আছো!!তোমার সাথে যত কিছুই হোক না এক দিনের জন্য হলেও তো তোমাকে ভালোবেসেছিলাম।

তাই যখন দেখি তোমার ক্যারিয়ার নিয়ে তোমার চিন্তা-ভাবনা নেই উল্টা এইসব নিয়ে দৌড়াচ্ছ তা দেখে খুবই দুঃখ পাই। হয়তো ২/৩ বছরের মধ্যে বিয়ে করে ফেলবো। আর অবশ্যই তোমার মত আমার হাজব্যান্ড হবে না। তোমার থেকে অবশ্যই ভালোই হবে। হয়তো টাকা কম থাকতে পারে তার!! আমার জন্য তুমি দোয়া করো।

আবারও তিনি লিখলেন নতুন স্ট্যাটাস। খোলা চিঠির আদলে সেই স্ট্যাটাসে সুবাহ দাবি করেন, নাসির যদি তার কাছে ফিরে যেত তাহলে তামিমার মতো ২ সন্তানের মায়ের কাছে ধরা খেতে হতো না। যথারীতি তার এই স্ট্যাটাসটিও ভাইরাল হয়েছে।

আজ বুধবার (৩ নভেম্বর) সুবাহ চিঠির আকারে লিখেছেন, ‘Dear X, You know what? সেদিন যদি তুমি একটা বার আমার কাছে চলে এসে সবকিছু ঠিক করে নিতে, তাহলে হয়তো আজ তামিমার মতো ২ বাচ্ছার মার কাছে তোমার ধরা খেতে হতো না! আর ধরা খেয়ে এইভাবে কোর্টে কোর্টে টাকা খরচ করে জামিন নিতে হতো না।’

নাসির তামিমার কাছে ভালো নেই দাবি করে সুবাহ আরও লেখেন, ‘তুমি মুখে যতই হাসো কিন্তু তোমাকে দেখলেই আমি বুঝতে পারি তুমি ভালো নেই। তোমাকে এভাবে অপমানিত হতে দেখে আমার খুব খারাপ লাগছে।

এখনো তোমার জন্য তোমার নাম জড়িয়ে আমাকে অনেকেই কমেন্ট করে তোমার নাম লিখে অথচ তুমি এখন অন্য কাউকে নিয়ে আছো!!তোমার সাথে যত কিছুই হোক না এক দিনের জন্য হলেও তো তোমাকে ভালোবেসেছিলাম।

তাই যখন দেখি তোমার ক্যারিয়ার নিয়ে তোমার চিন্তা-ভাবনা নেই উল্টা এইসব নিয়ে দৌড়াচ্ছ তা দেখে খুবই দুঃখ পাই। হয়তো ২/৩ বছরের মধ্যে বিয়ে করে ফেলবো। আর অবশ্যই তোমার মত আমার হাজব্যান্ড হবে না। তোমার থেকে অবশ্যই ভালোই হবে। হয়তো টাকা কম থাকতে পারে তার!! আমার জন্য তুমি দোয়া করো।

তোমার জন্য শুভকামনা রইলো। আশা করি সবকিছু বাদ দিয়ে আবার নতুন করে জাতীয় দলে ফিরে আসবে
ভালো থেকো সব সময়।

ইতি, তোমার সবচেয়ে অপছন্দের ব্যক্তি সুবাহ।’

About admin

Check Also

বাংলাদেশে নিরাপদ সড়কের দাবিতে শ্রাবন্তী

প্রতিদিন সড়কে ঝরে যাচ্ছে একাধিক প্রাণ। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় বিক্ষোভ হলেও সময় গড়াতেই এসব …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *