তারাবির নামাজে সুরা তেলাওয়াতে ভুল ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ২

তারাবির নামাজ রোজার গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। তারাবি নামাজ জামাতে পড়া ও সম্পূর্ণ কুরআনুল কারিম একবার খতম করা সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। তবে নামাজ নিয়ে কতা কাটাকাটি মুঠেও কাম্য নয়। তারাবির নামাজে তেলাওয়াত করা সুরায় ভুল ধরাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে দুজন আহত হয়েছেন।

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার চৌবাড়িয়া হারোপাড়া মডেল স্কুল সংলগ্ন মসজিদে রোববার রাত নয়টার দিকে তারাবির নামাজ আদায়ের মধ্যবর্তী সময়ে এই সংঘর্ষ হয়।খরব পেয়ে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনায় আহত দুজন ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারাবির নামাজ চলাকালে মসজিদের ঈমাম রহমত উল্লাহ সুরা ইখলাস পরার সময়ে সিকান্দার নামের এক ব্যক্তি তার সুরা উচ্চারণ শুদ্ধ নয় বলে মন্তব্য করেন

তার প্রেক্ষিতে স্থানীয় সালাম নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে মন্তব্যকারী বাগবিতণ্ডায় জড়ান। সেখানে উপস্থিত সিকান্দারের ছেলে ফরহাদ সালামকে মারধর করতে চাইলে উপস্থিত মুসুল্লিরা তাদের থামিয়ে দেন।

এরপর পুনরায় নামাজ শুরু হলে ফরহাদ মসজিদ থেকে বাইরে গিয়ে তার ভাই সেলিম হোসেন, সাইফ আলী বিশ্বাস ও সেলিমের ছেলে বায়েজিদকে ডেকে মসজিদের সামনে নিয়ে এসে বাইরে থেকে ভেতরে থাকা সালামকে হুমকি দিতে থাকে।

এ সময় উপস্থিত মুসুল্লিরা সালামকে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে মসজিদের বাইরে যেতে বাধা দেয়। পরে সালামের ভাই আক্কাস আলী ও সিদ্দীক সেখানে উপস্থিত হলে বাইরে থাকা ফরহাদ, সেলিম, সাইফ ও বায়েজিদের সঙ্গে মারপিট হয়। মারপিটে ফরহাদ ও আক্কাস আলী আহত হন।

তারাবির নামাজ রোজার গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। তারাবি নামাজ জামাতে পড়া ও সম্পূর্ণ কুরআনুল কারিম একবার খতম করা সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। তবে নামাজ নিয়ে কতা কাটাকাটি মুঠেও কাম্য নয়। তারাবির নামাজে তেলাওয়াত করা সুরায় ভুল ধরাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে দুজন আহত হয়েছেন।

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার চৌবাড়িয়া হারোপাড়া মডেল স্কুল সংলগ্ন মসজিদে রোববার রাত নয়টার দিকে তারাবির নামাজ আদায়ের মধ্যবর্তী সময়ে এই সংঘর্ষ হয়।খরব পেয়ে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনায় আহত দুজন ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারাবির নামাজ চলাকালে মসজিদের ঈমাম রহমত উল্লাহ সুরা ইখলাস পরার সময়ে সিকান্দার নামের এক ব্যক্তি তার সুরা উচ্চারণ শুদ্ধ নয় বলে মন্তব্য করেন

তার প্রেক্ষিতে স্থানীয় সালাম নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে মন্তব্যকারী বাগবিতণ্ডায় জড়ান। সেখানে উপস্থিত সিকান্দারের ছেলে ফরহাদ সালামকে মারধর করতে চাইলে উপস্থিত মুসুল্লিরা তাদের থামিয়ে দেন।

এরপর পুনরায় নামাজ শুরু হলে ফরহাদ মসজিদ থেকে বাইরে গিয়ে তার ভাই সেলিম হোসেন, সাইফ আলী বিশ্বাস ও সেলিমের ছেলে বায়েজিদকে ডেকে মসজিদের সামনে নিয়ে এসে বাইরে থেকে ভেতরে থাকা সালামকে হুমকি দিতে থাকে।

এ সময় উপস্থিত মুসুল্লিরা সালামকে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে মসজিদের বাইরে যেতে বাধা দেয়। পরে সালামের ভাই আক্কাস আলী ও সিদ্দীক সেখানে উপস্থিত হলে বাইরে থাকা ফরহাদ, সেলিম, সাইফ ও বায়েজিদের সঙ্গে মারপিট হয়। মারপিটে ফরহাদ ও আক্কাস আলী আহত হন।

About admin

Check Also

বন্যায় সিলেট নগরে বিয়ে, রিকশায় বরের বাড়ি যাচ্ছেন কনে

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিলেটে বন্যা দেখা দিয়েছে। সুরমা নদী উপচে সিলেট নগরেও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.