মানুষের জীবনে কোনো কিছুর গ্যারান্টি নেই : সাকিব

চিরদিনের জন্য নিভে গেল উজ্জ্বল এক তারা। বাংলাদেশ দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল আর নেই। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) হুট করে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তবে চিকিৎসকরা আর বাঁচাতে পারেননি রুবেলকে।

যদিও মাত্র কয়েক দিন আগে এক মাসের চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন রুবেল। সে সময় অনেকেই আশায় বুক বেঁধেছিলেন, রুবেলের জটিল রোগটা হয়ত অনেকটাই সেরে গেছে। সেই দলে ছিলেন সাকিব আল হাসানও।

রুবেল যেদিন সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন, সাকিব তখন যুক্তরাষ্ট্রে। মাত্র কিছু দিন আগে নিজের প্রতিষ্ঠান মোনার্ক মার্টের পক্ষ থেকে রুবেলের দিকে বাড়িয়ে দিয়েছিলেন সহায়তার হাত। কে জানে, এবার দেশে ফিরে হয়ত রুবেলের পাশে বসে গল্প করারও পরিকল্পনা ছিল সাবেক সতীর্থের।

তবে সেই সুযোগ আর হয়নি। সাকিব যখন দেশে ফেরার বিমানে, তখনই রুবেল পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। রুবেলের এই প্রয়াণ মানুষের ঠুনকো জীবনের প্রমাণ, বলছেন সাকিব।

দেশে ফিরে রুবেলের প্রয়াণে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে সাকিব বলেন, ‘…খুবই দুঃখের। আমি যেহেতু যুক্তরাষ্ট্রে ছিলাম, খবরে দেখছিলাম মাত্র বাসায় গেলেন, আগের চেয়ে ভালো আছেন। আমি ভাবলাম যেভাবেই হোক সেরে উঠেছেন।

আমি আরেকজনের সাথে কথাও বলছিলাম এটা নিয়ে যে হয়ত কম বয়স দেখে সেরে উঠতে পেরেছেন। বিমানে করে আসার সময় মৃত্যুর খবর পাই। খুবই দুঃখজনক। জীবনে কোনো কিছুর গ্যারান্টি নেই, সেটার একটা প্রমাণ।’

চিরদিনের জন্য নিভে গেল উজ্জ্বল এক তারা। বাংলাদেশ দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল আর নেই। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) হুট করে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তবে চিকিৎসকরা আর বাঁচাতে পারেননি রুবেলকে।

যদিও মাত্র কয়েক দিন আগে এক মাসের চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন রুবেল। সে সময় অনেকেই আশায় বুক বেঁধেছিলেন, রুবেলের জটিল রোগটা হয়ত অনেকটাই সেরে গেছে। সেই দলে ছিলেন সাকিব আল হাসানও।

রুবেল যেদিন সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন, সাকিব তখন যুক্তরাষ্ট্রে। মাত্র কিছু দিন আগে নিজের প্রতিষ্ঠান মোনার্ক মার্টের পক্ষ থেকে রুবেলের দিকে বাড়িয়ে দিয়েছিলেন সহায়তার হাত। কে জানে, এবার দেশে ফিরে হয়ত রুবেলের পাশে বসে গল্প করারও পরিকল্পনা ছিল সাবেক সতীর্থের।

তবে সেই সুযোগ আর হয়নি। সাকিব যখন দেশে ফেরার বিমানে, তখনই রুবেল পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। রুবেলের এই প্রয়াণ মানুষের ঠুনকো জীবনের প্রমাণ, বলছেন সাকিব।

দেশে ফিরে রুবেলের প্রয়াণে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে সাকিব বলেন, ‘…খুবই দুঃখের। আমি যেহেতু যুক্তরাষ্ট্রে ছিলাম, খবরে দেখছিলাম মাত্র বাসায় গেলেন, আগের চেয়ে ভালো আছেন। আমি ভাবলাম যেভাবেই হোক সেরে উঠেছেন।

আমি আরেকজনের সাথে কথাও বলছিলাম এটা নিয়ে যে হয়ত কম বয়স দেখে সেরে উঠতে পেরেছেন। বিমানে করে আসার সময় মৃত্যুর খবর পাই। খুবই দুঃখজনক। জীবনে কোনো কিছুর গ্যারান্টি নেই, সেটার একটা প্রমাণ।’

চিরদিনের জন্য নিভে গেল উজ্জ্বল এক তারা। বাংলাদেশ দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল আর নেই। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) হুট করে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তবে চিকিৎসকরা আর বাঁচাতে পারেননি রুবেলকে।

যদিও মাত্র কয়েক দিন আগে এক মাসের চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন রুবেল। সে সময় অনেকেই আশায় বুক বেঁধেছিলেন, রুবেলের জটিল রোগটা হয়ত অনেকটাই সেরে গেছে। সেই দলে ছিলেন সাকিব আল হাসানও।

রুবেল যেদিন সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন, সাকিব তখন যুক্তরাষ্ট্রে। মাত্র কিছু দিন আগে নিজের প্রতিষ্ঠান মোনার্ক মার্টের পক্ষ থেকে রুবেলের দিকে বাড়িয়ে দিয়েছিলেন সহায়তার হাত। কে জানে, এবার দেশে ফিরে হয়ত রুবেলের পাশে বসে গল্প করারও পরিকল্পনা ছিল সাবেক সতীর্থের।

তবে সেই সুযোগ আর হয়নি। সাকিব যখন দেশে ফেরার বিমানে, তখনই রুবেল পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। রুবেলের এই প্রয়াণ মানুষের ঠুনকো জীবনের প্রমাণ, বলছেন সাকিব।

দেশে ফিরে রুবেলের প্রয়াণে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে সাকিব বলেন, ‘…খুবই দুঃখের। আমি যেহেতু যুক্তরাষ্ট্রে ছিলাম, খবরে দেখছিলাম মাত্র বাসায় গেলেন, আগের চেয়ে ভালো আছেন। আমি ভাবলাম যেভাবেই হোক সেরে উঠেছেন।

আমি আরেকজনের সাথে কথাও বলছিলাম এটা নিয়ে যে হয়ত কম বয়স দেখে সেরে উঠতে পেরেছেন। বিমানে করে আসার সময় মৃত্যুর খবর পাই। খুবই দুঃখজনক। জীবনে কোনো কিছুর গ্যারান্টি নেই, সেটার একটা প্রমাণ।’

About admin

Check Also

বিশ্বকাপের আগে ২ বছরের জেল হতে পারে নেইমারের

আসন্ন কাতার বিশ্বকাপের ঠিক আগে নেইমারের দুয়ারে এসে হাজির নতুন আপদ। কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.