জিনিসপত্রের দাম সামনে আরও কত বাড়বে তার ঠিক নেই: প্রধানমন্ত্রী

জিনিসপত্রের দাম সামনে আরও কত বাড়বে তার ঠিক নাই। এ অবস্থায় কারও কথায় পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলন না করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, রফতানি বন্ধ হয়ে গেলে গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাবে। তখন আর বেতন বাড়ানোরও সুযোগ থাকবে না। দুকূলই হারাবে শ্রমিকরা।

ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার (৭ জুন) আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্রমিকরা আন্দোলন করছে করুক। বেতন তো বন্ধ হয়নি। শ্রমিকদের জন্য ভর্তুকির অর্থ সরাসরি তাদের হাতে দেয়া হয়েছে।

এ অবস্থায় যে নেতারা উস্কানি দিচ্ছে তাদেরকেও সাবধান হওয়ার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্রমিকরা আন্দোলন করছে। করুক। রফতানি যদি বন্ধ হয় তখন বেতন আর বাড়বে না। গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাবে। তখন বেতন বাড়বে না। চাকরিই চলে যাবে। নেতাদের তো ক্ষতি নাই। গার্মেন্টস বন্ধ হলে শ্রমিকদের ক্ষতি হবে

রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাইকে সঞ্চয় করতে হবে। উৎপাদনও বাড়াতে হবে। এ অবস্থায় অশান্তি করলে দেশের ক্ষতি নিজেরও ক্ষতি। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধির কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সামনে আরও দাম বৃদ্ধির শঙ্কা রয়েছে।

জিনিসপত্রের দাম সামনে আরও কত বাড়বে তার ঠিক নাই। এ অবস্থায় কারও কথায় পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলন না করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, রফতানি বন্ধ হয়ে গেলে গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাবে। তখন আর বেতন বাড়ানোরও সুযোগ থাকবে না। দুকূলই হারাবে শ্রমিকরা।

ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার (৭ জুন) আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্রমিকরা আন্দোলন করছে করুক। বেতন তো বন্ধ হয়নি। শ্রমিকদের জন্য ভর্তুকির অর্থ সরাসরি তাদের হাতে দেয়া হয়েছে।

এ অবস্থায় যে নেতারা উস্কানি দিচ্ছে তাদেরকেও সাবধান হওয়ার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্রমিকরা আন্দোলন করছে। করুক। রফতানি যদি বন্ধ হয় তখন বেতন আর বাড়বে না। গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাবে। তখন বেতন বাড়বে না। চাকরিই চলে যাবে। নেতাদের তো ক্ষতি নাই। গার্মেন্টস বন্ধ হলে শ্রমিকদের ক্ষতি হবে।

রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাইকে সঞ্চয় করতে হবে। উৎপাদনও বাড়াতে হবে। এ অবস্থায় অশান্তি করলে দেশের ক্ষতি নিজেরও ক্ষতি। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধির কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সামনে আরও দাম বৃদ্ধির শঙ্কা রয়েছে।

জিনিসপত্রের দাম সামনে আরও কত বাড়বে তার ঠিক নাই। এ অবস্থায় কারও কথায় পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলন না করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, রফতানি বন্ধ হয়ে গেলে গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাবে। তখন আর বেতন বাড়ানোরও সুযোগ থাকবে না। দুকূলই হারাবে শ্রমিকরা।

ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার (৭ জুন) আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্রমিকরা আন্দোলন করছে করুক। বেতন তো বন্ধ হয়নি। শ্রমিকদের জন্য ভর্তুকির অর্থ সরাসরি তাদের হাতে দেয়া হয়েছে।

এ অবস্থায় যে নেতারা উস্কানি দিচ্ছে তাদেরকেও সাবধান হওয়ার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্রমিকরা আন্দোলন করছে। করুক। রফতানি যদি বন্ধ হয় তখন বেতন আর বাড়বে না। গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাবে। তখন বেতন বাড়বে না। চাকরিই চলে যাবে। নেতাদের তো ক্ষতি নাই। গার্মেন্টস বন্ধ হলে শ্রমিকদের ক্ষতি হবে।

রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাইকে সঞ্চয় করতে হবে। উৎপাদনও বাড়াতে হবে। এ অবস্থায় অশান্তি করলে দেশের ক্ষতি নিজেরও ক্ষতি। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধির কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সামনে আরও দাম বৃদ্ধির শঙ্কা রয়েছে।

About admin

Check Also

সরকার চাইলে খালেদা-তারেকের ফোনে কথা বলা বন্ধ করে দিতে পারে: মতিয়া চৌধুরী

এবার আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, শেখ হাসিনা উদার বলেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.