কুলির সর্দার থেকে কোটিপতি, শ্রমিকলীগ নেতা প্রবাসীর উচ্চ শিক্ষিত স্ত্রীকে বানালেন ৪র্থ স্ত্রী

নেত্রকোনার দুর্গাপুরের শ্রমিক নেতা আলাল। নিজ ঘরে দুই (২) স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে তার অন্তরঙ্গ মুহূর্তের কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে আলোচনার ঝড় ওঠে।এছাড়া এ নারীকে বিয়ে করেছেন বলেও থানায় অভিযোগ করেছেন প্রবাসীর ভাই। গত মঙ্গলবার এ অভিযোগ করা হয়। সৌদি প্রবাসী মো. কাউছার মিয়া জেলার কলমাকান্দা উপজেলার উত্তর নাউরীপাড়ার আব্দুল হেকিমের ছেলে। ২০১৪ সালে তার সঙ্গে

দুগার্পুরের কাকৈরগড়া গ্রামের মনি আক্তারের বিয়ে হয়। তাদের পাঁচ বছরের এক ছেলে রয়েছে। বিয়ের পর তিনি আবারো সৌদি আরবে চলে যান। এরপর স্ত্রীও পৌরশহরের বাগিচাপাড়ায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন। সেখান থেকেই তিনি একটি কলেজ থেকে পড়াশোনা শেষ করেন।

বাগিচাপাড়ায় থাকা অবস্থায় মনি আক্তারের সঙ্গে প্রতিবেশী শ্রমিক নেতা থেকে কোটিপতি হওয়া আলালের অবৈধ সম্পর্ক হয়। তাদের অন্তরঙ্গ কিছু ছবি ফেসবুকে ভাইরালও হয়েছে। এছাড়া এসব ছবি স্বামী কাউছারের ইমোতেও পাঠানো হয়একপর্যায়ে মনিকে চতুর্থ বিয়ে করেন আলাল। এছাড়া বাকি স্ত্রীর মধ্যে একজনকে ডিভোর্স দিয়েছেন তিনি। আর দুই স্ত্রীর তিন সন্তান রয়েছে। তাদের আলাদা বাসাও দিয়েছেন।

সায়ীকে প্রকাশ্যে মার

ধর, পৌর সদরের বালু মহালে শ্রমিক মারধর, গুটিকয়েক রাজনৈতিক নেতার প্রশ্রয়ে নানা ধরনের অনিয়ম বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।বৈধ ও অবৈধ উপায়ে নানাভাবে বিত্তশালী হওয়ায়, সহজ-সরল সুন্দরী মেয়েদের নানা লোভে ফেলে চরিতার্থ করে লালসা। বালু ঘাটের কুলির সর্দার থেকে রাতের আঁধারেই কোটি কোটি টাকার মালিক বনে যান তিনি। ওই পদের নাম ভাঙ্গিয়ে নানা অপকর্মে লিপ্ত হয়ে পেছনে ফিরে তাকাতে হয় না আলাল সর্দারকে।

পৌর এলাকায় আলাল সর্দারের বিরুদ্ধে সরকারি খাস জমি দখল, নামে-বেনামে ৫টি বাড়ি নির্মাণ, বেশকটি ট্রাকের মালিক, জমি দখলকে কেন্দ্র করে অসহায় কামালকে মারধর, শুটকি ব্যব

এসব বিষয়ে জানতে একাধিকবার ফোন করেও শ্রমিক নেতা আলালের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এদিকে কাউছারের সঙ্গে মনির ডিভোর্স হয়নি বলে জানিয়েছে প্রবাসীর পরিবার।

এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ করেছেন প্রবাসীর ভাই লাক মিয়া। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।সায়ীকে প্রকাশ্যে মারধর, পৌর সদরের বালু মহালে শ্রমিক মারধর, গুটিকয়েক রাজনৈতিক নেতার প্রশ্রয়ে নানা ধরনের অনিয়ম বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।বৈধ ও অবৈধ উপায়ে নানাভাবে বিত্তশালী হওয়ায়, সহজ-সরল সুন্দরী মেয়েদের নানা লোভে ফেলে চরিতার্থ করে লালসা।

বালু ঘাটের কুলির সর্দার থেকে রাতের আঁধারেই কোটি কোটি টাকার মালিক বনে যান তিনি। ওই পদের নাম ভাঙ্গিয়ে নানা অপকর্মে লিপ্ত হয়ে পেছনে ফিরে তাকাতে হয় না আলাল সর্দারকে।পৌর এলাকায় আলাল সর্দারের বিরুদ্ধে সরকারি খাস জমি দখল, নামে-বেনামে ৫টি বাড়ি নির্মাণ, বেশকটি ট্রাকের মালিক, জমি দখলকে কেন্দ্র করে অসহায় কামালকে মারধর, শুটকি ব্যব

এসব বিষয়ে জানতে একাধিকবার ফোন করেও শ্রমিক নেতা আলালের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এদিকে কাউছারের সঙ্গে মনির ডিভোর্স হয়নি বলে জানিয়েছে প্রবাসীর পরিবার।

এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ করেছেন প্রবাসীর ভাই লাক মিয়া। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

About admin

Check Also

কলকাতার আরেক পরিচালকের সঙ্গে মিথিলার প্রেমের গুঞ্জন!

তার ক্যারিয়ারজুড়েই ছিল বিভিন্ন গুঞ্জন। নানা সময়ে নানা গুঞ্জন ডালাপালা মেলেছে তাকে ঘিরে। তিনি বাংলাদেশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.