৫ লাখে বিক্রি হবে ১২ মণের ‘ওমর সানী’ বিস্তারিত ভেতরে

ঈদের আর মাত্র ৩ দিন বাকি। ঈদকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে কোরবানির হাটগুলো। কোরবানির হাটগুলোতে ক্রেতারা ভিড় করছে কোরবানির পশু কিনার জন্য। তবে এবার করোনার সংক্রমণ কম থাকায় কেউ হাট, কেউবা আবার অ্যাগ্রো ফার্মগুলোতে সরাসরি গিয়ে কোরবানির পশু কিনবেন।

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের ঐতিহ্যবাহী আনন্দবাজার হাটে ক্রেতাদের ভিড় দেখা গেছে।ক্রেতাদের মূল আকর্ষণ ফার্মটির একটি গরুর দিকে। যে গরুটির নাম রাখা হয়েছে ‘ওমর সানী’।

আড়াই বছর বয়সী গরুটি অস্ট্রেলিয়ান ফ্রিজিয়ান জাতের। গরুটির গায়ের রং সাদা ও কালো মিশ্রণ। ৮ ফুট লম্বা ও ৫ ফুট উচ্চতার গরুটির ওজন প্রায় ১২ মণ। গরুটির দাম হাঁকানো হচ্ছে ৫ লাখ টাকা।

খামারের কর্মচারীরা জানান, প্রতিদিন ‘ওমর সানী’র খাদ্য তালিকায় আলাদাভাবে ১০ কেজি ভুসি, ৫ কেজি সবুজ ঘাস, ৫ মুঠো খড় ইত্যাদি থাকে।গরুর মালিক আবু হানিফ জানান, তিনি সবসময় আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া থেকে আনন্দবাজার হাটে গরু বিক্রি করতে আনেন।

এবারো দুটো গরুর মধ্যে একটি এ হাটে এনেছে। যে গরুটির নাম তিনি রেখেছেন ওমর সানী। এমন নামের বিষয়ে তিনি বলেন, ওমর সানী তার প্রিয় নায়ক। সেজন্য তিনি তার প্রিয় গরুকে ভালোবেসে এ নাম রেখেছেন।

তিনি জানান, তার এ গরুটি দেখতে অধিকাংশ ক্রেতাই ভিড় জমাচ্ছেন। এ পর্যন্ত গরুটির দাম ৩ লাখের মতো উঠেছে। আশা করছি আরো বেশি দাম পাবো। অনেক যতœ করে গরুটি লালন পালন করেছেন বলে জানান তিনি।

আনন্দবাজার গরুর ইজারাদার আব্দুল বাসেত জানান, এবার তাদের হাটে ১ হাজারের বেশি গরু রয়েছে। এসব গরু আকারভেদে ৫০ হাজার থেকে ১০ লাখ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতারা যেনো সহজেই তাদের পছন্দের গরু কিনতে পারে সেজন্য সব ব্যবস্থা হাট কর্তৃপক্ষ করেছে বলে জানান তিনি।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা বাসনা আখতার জানান, এবার নারায়ণগঞ্জের প্রতিটি হাটে তাদের ভেটেরিনারি টিম থাকবে। কোনো হাটে ইন্ডিয়ান গরু যেনো না আসতে পারে সেদিকে আমরা সজাগ রয়েছি।

কোরবানির জন্য এবার পর্যাপ্ত পরিমাণে কোরবানির পশু রয়েছে। এছাড়া অ্যাগ্রো ফার্মগুলোর পশু বিক্রির ক্ষেত্রে তাদের যা সহায়তা দরকার তা আমরা করছি। এবার অনলাইনে পশু বিক্রি ২০০ কোটি টাকা ছাড়াতে পারে বলে খামারিরা আশা প্রকাশ করেছেন।

খামারের কর্মচারীরা জানান, প্রতিদিন ‘ওমর সানী’র খাদ্য তালিকায় আলাদাভাবে ১০ কেজি ভুসি, ৫ কেজি সবুজ ঘাস, ৫ মুঠো খড় ইত্যাদি থাকে।গরুর মালিক আবু হানিফ জানান, তিনি সবসময় আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া থেকে আনন্দবাজার হাটে গরু বিক্রি করতে আনেন।

এবারো দুটো গরুর মধ্যে একটি এ হাটে এনেছে। যে গরুটির নাম তিনি রেখেছেন ওমর সানী। এমন নামের বিষয়ে তিনি বলেন, ওমর সানী তার প্রিয় নায়ক। সেজন্য তিনি তার প্রিয় গরুকে ভালোবেসে এ নাম রেখেছেন।

তিনি জানান, তার এ গরুটি দেখতে অধিকাংশ ক্রেতাই ভিড় জমাচ্ছেন। এ পর্যন্ত গরুটির দাম ৩ লাখের মতো উঠেছে। আশা করছি আরো বেশি দাম পাবো। অনেক যতœ করে গরুটি লালন পালন করেছেন বলে জানান তিনি।

About admin

Check Also

ভক্তদের পাহাড় দেখানেন অভিনেত্রী মধুমিতা

অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার ‘বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালের মাধ্যমে পেয়েছিলেন তুমুল জনপ্রিয়তা। এই নাটকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.