পা পিছলে পদ্মায়, ১৪ ঘণ্টা পর বুয়েট শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

ঢাকার দোহারের মৈনটঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে নিখোঁজের ১৪ ঘন্টা পর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস আ্যন্ড সিভিল ডিফেন্স। ওই শিক্ষার্থীর নাম তারিকুজ্জামান সানি (২৫)। তিনি বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের পঞ্চম সেশনের ছাত্র ছিলেন। বসবাস করতেন রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায়।

ফায়ার সার্ভিস অধিদপ্তরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) রাতে আমরা খবর পাই, মৈনটঘাটে পদ্মা নদীতে বুয়েটের এক শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছেন। আমরা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ডুবুরি দল পাঠাই।

রাতে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও সানির সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে শুক্রবার (১৫ জুলাই) সকাল ১১টা ২৬ মিনিটে পদ্মা নদী থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ দোহার থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে ১৫-১৬ জনের একটি দল দোহারের মৈনটঘাটে ঘুরতে যান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘাটে অবস্থানরত ড্রেজার বাল্কহেডে উঠে মোবাইল ফোনে সেলফি তোলার সময় পা পিছলে নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন সানি।

ওসি আরও বলেন, ফায়ার সার্ভিস লাশ উদ্ধার করে থানায় হস্তান্তর করে। আমরা সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য সানির মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। তার পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ঢাকার দোহারের মৈনটঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে নিখোঁজের ১৪ ঘন্টা পর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস আ্যন্ড সিভিল ডিফেন্স। ওই শিক্ষার্থীর নাম তারিকুজ্জামান সানি (২৫)। তিনি বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের পঞ্চম সেশনের ছাত্র ছিলেন। বসবাস করতেন রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায়।

ফায়ার সার্ভিস অধিদপ্তরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) রাতে আমরা খবর পাই, মৈনটঘাটে পদ্মা নদীতে বুয়েটের এক শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছেন। আমরা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ডুবুরি দল পাঠাই।

রাতে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও সানির সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে শুক্রবার (১৫ জুলাই) সকাল ১১টা ২৬ মিনিটে পদ্মা নদী থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ দোহার থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে ১৫-১৬ জনের একটি দল দোহারের মৈনটঘাটে ঘুরতে যান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘাটে অবস্থানরত ড্রেজার বাল্কহেডে উঠে মোবাইল ফোনে সেলফি তোলার সময় পা পিছলে নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন সানি।

ওসি আরও বলেন, ফায়ার সার্ভিস লাশ উদ্ধার করে থানায় হস্তান্তর করে। আমরা সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য সানির মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। তার পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ঢাকার দোহারের মৈনটঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে নিখোঁজের ১৪ ঘন্টা পর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস আ্যন্ড সিভিল ডিফেন্স। ওই শিক্ষার্থীর নাম তারিকুজ্জামান সানি (২৫)। তিনি বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের পঞ্চম সেশনের ছাত্র ছিলেন। বসবাস করতেন রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায়।

ফায়ার সার্ভিস অধিদপ্তরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) রাতে আমরা খবর পাই, মৈনটঘাটে পদ্মা নদীতে বুয়েটের এক শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছেন। আমরা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ডুবুরি দল পাঠাই।

রাতে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও সানির সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে শুক্রবার (১৫ জুলাই) সকাল ১১টা ২৬ মিনিটে পদ্মা নদী থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ দোহার থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে ১৫-১৬ জনের একটি দল দোহারের মৈনটঘাটে ঘুরতে যান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘাটে অবস্থানরত ড্রেজার বাল্কহেডে উঠে মোবাইল ফোনে সেলফি তোলার সময় পা পিছলে নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন সানি।

About admin

Check Also

স্বামী ভেবে অন্ধকারে মেলামেশা, বাতি জ্বালাতেই দেখেন প্রতিবেশীর জামাই

এবার স্বামী বাইরে থাকায় ঘরের দরজা না লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এ সুযোগে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.