বিতাড়িত করতে হবে না প্রয়োজন হলে দায়িত্ব ছেড়ে দেব: সিইসি

মেহেদী হাসান হাসিব, নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, দায়িত্ব থেকে বিতাড়িত করতে হবে না, প্রয়োজন হলে দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে পথ সুগম করে দিব।

সোমবার (১৮ জুলাই) আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপে এক কথা বলেন সিইসি। সংলাপের দ্বিতীয় দিনে সকাল সাড়ে দশটায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, বিএনপি যদি আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা করে নতুন কোনো ব্যবস্থায় নির্বাচনে আসে তাতে ইসির কোন আপত্তি থাকতে পারে না। আমরা চাই গ্রহণযোগ্য নির্বাচন৷ অনুকূল পরিবেশ ও সমতল ভিত্তি তৈরি করতে চাই। একটি জবাবদিহিমূলক দায়িত্বশীল সংসদ দরকার।

সংলাপে ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব এম এ মতিন বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা কখনোই স্থায়ী ব্যবস্থা হতে পারে না। স্বাধীন নির্বাচন কমিশনই জাতিকে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পারে। তবে ইসির ক্ষমতা নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

নির্বাচনের সময় স্থানীয় সরকার, জনপ্রশাসন, প্রতিরক্ষা, স্বরাষ্ট্র, অর্থ মন্ত্রণালয় ইসির অধীনে থাকতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ক্ষমতা যদি না থাকে ইসির যতই সদিচ্ছা হোক নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, দায়িত্ব থেকে বিতাড়িত করতে হবে না, প্রয়োজন হলে দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে পথ সুগম করে দিব।

সোমবার (১৮ জুলাই) আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপে এক কথা বলেন সিইসি। সংলাপের দ্বিতীয় দিনে সকাল সাড়ে দশটায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, বিএনপি যদি আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা করে নতুন কোনো ব্যবস্থায় নির্বাচনে আসে তাতে ইসির কোন আপত্তি থাকতে পারে না। আমরা চাই গ্রহণযোগ্য নির্বাচন৷ অনুকূল পরিবেশ ও সমতল ভিত্তি তৈরি করতে চাই। একটি জবাবদিহিমূলক দায়িত্বশীল সংসদ দরকার।

সংলাপে ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব এম এ মতিন বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা কখনোই স্থায়ী ব্যবস্থা হতে পারে না। স্বাধীন নির্বাচন কমিশনই জাতিকে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পারে। তবে ইসির ক্ষমতা নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

নির্বাচনের সময় স্থানীয় সরকার, জনপ্রশাসন, প্রতিরক্ষা, স্বরাষ্ট্র, অর্থ মন্ত্রণালয় ইসির অধীনে থাকতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ক্ষমতা যদি না থাকে ইসির যতই সদিচ্ছা হোক নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।

মেহেদী হাসান হাসিব, নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, দায়িত্ব থেকে বিতাড়িত করতে হবে না, প্রয়োজন হলে দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে পথ সুগম করে দিব।

সোমবার (১৮ জুলাই) আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপে এক কথা বলেন সিইসি। সংলাপের দ্বিতীয় দিনে সকাল সাড়ে দশটায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, বিএনপি যদি আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা করে নতুন কোনো ব্যবস্থায় নির্বাচনে আসে তাতে ইসির কোন আপত্তি থাকতে পারে না। আমরা চাই গ্রহণযোগ্য নির্বাচন৷ অনুকূল পরিবেশ ও সমতল ভিত্তি তৈরি করতে চাই। একটি জবাবদিহিমূলক দায়িত্বশীল সংসদ দরকার।

সংলাপে ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব এম এ মতিন বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা কখনোই স্থায়ী ব্যবস্থা হতে পারে না। স্বাধীন নির্বাচন কমিশনই জাতিকে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পারে। তবে ইসির ক্ষমতা নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

নির্বাচনের সময় স্থানীয় সরকার, জনপ্রশাসন, প্রতিরক্ষা, স্বরাষ্ট্র, অর্থ মন্ত্রণালয় ইসির অধীনে থাকতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ক্ষমতা যদি না থাকে ইসির যতই সদিচ্ছা হোক নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।

About admin

Check Also

উত্তরায় বিস্ফোরণে দগ্ধ একে একে ৮ জনেরই মৃত্যু

রাজধানীর তুরাগের কামারপাড়ায় ভাঙারির দোকানে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ৮ জনের ই মৃত্যু ঘটেছে। সর্বশেষ শুক্রবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.