শিক্ষকের ‘ইঙ্গিতপূর্ণ’ মেসেজ, ছাত্রীদের প্রতিবাদ ফেসবুক গ্রুপে

রাজধানীর একটি বেসরকারি কলেজের শিক্ষকের বিরুদ্ধে ফেসবুক গ্রপে হয়রানির অভিযোগ এনেছেন একাধিক ছাত্রী। ‘অ্যাকশন এগেইনস্ট হ্যারাসমেন্ট’ নামের ওই গ্রুপে শিক্ষকের একাধিক চ্যাটের স্ক্রিনশট শেয়ার করেছে ছাত্রীরা।

ওই গ্রুপ ঘুরে দেখা যায়, রাজধানীর উত্তরার ওই কলেজের শিক্ষকের বিরুদ্ধে রিম রহমান নামের এক শিক্ষার্থী প্রথমে অভিযোগ করেন। চ্যাটের স্ক্রিনশট পোস্ট করে করা ঐ অভিযোগের পর আরও অনেক ছাত্রী তাদের বাজে অভিজ্ঞতার কথাও শেয়ার করেন।

স্ক্রিনশট প্রকাশ করে রিম লিখেছেন, ‘এইগুলো হয়তো আমি ভাইরাল করতাম না। আজকে করার একটাই কারণ যে উনি ক্লাস সেভেন এইটে থাকতে আমাদের অনেকগুলো ফ্রেন্ডকে হ্যারাস করছে। কিন্তু আমাদের কাছে কোনো প্রমাণ ছিল না।

একজনের কাছে প্রমাণ ছিল, তাকে কনভিন্সড করে সেগুলো ফোন থেকে ডিলিট করিয়েছিলেন তিনি।’ ওই ছাত্রী আরও লিখেছে, আমি জানি আমার এই পোস্ট দেখার পর অনেকেই ওনার ব্যাপারে অনেক কিছু বলবে। দয়াকরে সকলেই বলুন, যাতে করে এই ধরণের মানুষ থেকে সবাই সতর্ক থাকতে পারেন

থানায় অভিযোগ করেছেন কি না এমন প্রশ্নে একটি জাতীয় দৈনিকের কাছে রিম জানান, ‘এ বিষয়ে গত ২২ নভেম্বর আমি রমনা থানায় যাই। সেখানে অপেক্ষা করি দীর্ঘ সময়। এরপরে আমাকে সাইবার সিকিউরিটি টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়। আমি আর যাইনি, ফেসবুকেই এসে গ্রুপ খুলি।

বিচার হোক বা না হোক, সাধারণ শিক্ষার্থীরা শিক্ষক নামের এইসকল প্রশ্নবিদ্ধ মানুষকে চিনুক।’অ্যাকশন এগেইনস্ট হ্যারাসমেন্ট’ নামের পুরো গ্রুপ ঘুরে দেখা যায় একাধিক শিক্ষার্থীর সঙ্গে একই ঘটনা ঘটিয়েছেন ওই শিক্ষক। জানা গেছে, রাজধানীর ওই স্কুল থেকে শিক্ষককে বহিস্কার করা হয়েছে।

স্ক্রিনশট প্রকাশ করে রিম লিখেছেন, ‘এইগুলো হয়তো আমি ভাইরাল করতাম না। আজকে করার একটাই কারণ যে উনি ক্লাস সেভেন এইটে থাকতে আমাদের অনেকগুলো ফ্রেন্ডকে হ্যারাস করছে। কিন্তু আমাদের কাছে কোনো প্রমাণ ছিল না।

একজনের কাছে প্রমাণ ছিল, তাকে কনভিন্সড করে সেগুলো ফোন থেকে ডিলিট করিয়েছিলেন তিনি।’ ওই ছাত্রী আরও লিখেছে, আমি জানি আমার এই পোস্ট দেখার পর অনেকেই ওনার ব্যাপারে অনেক কিছু বলবে। দয়াকরে সকলেই বলুন, যাতে করে এই ধরণের মানুষ থেকে সবাই সতর্ক থাকতে পারেন

থানায় অভিযোগ করেছেন কি না এমন প্রশ্নে একটি জাতীয় দৈনিকের কাছে রিম জানান, ‘এ বিষয়ে গত ২২ নভেম্বর আমি রমনা থানায় যাই। সেখানে অপেক্ষা করি দীর্ঘ সময়। এরপরে আমাকে সাইবার সিকিউরিটি টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়। আমি আর যাইনি, ফেসবুকেই এসে গ্রুপ খুলি।

বিচার হোক বা না হোক, সাধারণ শিক্ষার্থীরা শিক্ষক নামের এইসকল প্রশ্নবিদ্ধ মানুষকে চিনুক।’অ্যাকশন এগেইনস্ট হ্যারাসমেন্ট’ নামের পুরো গ্রুপ ঘুরে দেখা যায় একাধিক শিক্ষার্থীর সঙ্গে একই ঘটনা ঘটিয়েছেন ওই শিক্ষক। জানা গেছে, রাজধানীর ওই স্কুল থেকে শিক্ষককে বহিস্কার করা হয়েছে।

সুত্রঃ বিডি২৪লাইভ

About admin

Check Also

বউয়ের চেয়ে শাশুড়ি ভালো তাই শা’শুড়িকে বিয়ে করেছিঃ মোনছের আলী

মাত্র ১১ দিন আগে ধূ’মধাম করে বিয়ে হয়েছিল নূ’রন্নাহার খা’তুনের (১৯)। শ্ব’শুরবা’ড়িতে এক সপ্তাহ অ’বস্থানের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.